business loans, commercial loan, auto insurance quotes, motorcycle lawyer

How To Get More Subscribe On Youtube - কিভাবে ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়ানো যায়

আস্সালামু আলাইকুম! প্রিয় বন্ধুরা আপনারা সবাই কেমন আছে?

আজ আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়ানো যায় বা ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বৃদ্ধি করার কার্যকর ৮টি উপায়। কিভাবে ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়াব

তাহলে চলুন বন্ধুরা আর কথা না বাড়িয়ে চলে যাই আমাদের আজকের মূল টপিকে।

How To Get More Subscribe On Youtube - কিভাবে ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়ানো যায়


সূচনা:-

প্রিয় বন্ধুগন বর্তমানে ইউটিউব থেকে আয় কথাটি আর কারো কাছেই নতুন নয়। আর ইউটিউব থেকে আয় করার একটি অন্যতম মাধ্যম হলো সাবস্ক্রাইব।

সাবস্ক্রাইব হলো একটি ইউটিউব চ্যানেলের প্রাণ। আর তাই একজন ইউটিউবারের মনে সবসময় একটি প্রশ্ন থাকে যে; কিভাবে ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়ানো যায়?

ত চলুন এখন দেখে নেই চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়ানোর ৮টি উপায় কি কি।


টপিক সূচি:-

১/ কোয়ালিটি ও তথ্যবহুল কন্টেন্ট তৈরি করুন।

২/ চ্যানেল অপটিমাইজ করুন।

৩/ আকর্ষনীয় থাম্বনেইল দিন।

৪/ ভিডিওতে তাই দিন মানুষ যা খুঁজে।

৫/ গিভওয়ে কন্টেন্টের আয়োজন করুন।

৬/ আকর্ষনীয় একটি টাইটেল দিন।

৭/ নিয়মিত ভিডিও আপলোড করুন।

৮/ চ্যানেলের বিষয় বস্তু ঠিক রাখুন।


১/ কোয়ালিটি ও তথ্যবহুল কন্টেন্ট তৈরি করুন।

ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়ানোর একটি কার্যকর উপায় হলো ভালো কনটেন্ট তৈরি করা। আপনার চ্যানেলের গ্রোথ এর জন্য আপনাকে অবশ্যই এই কথাটি মাথায় রাখতে হবে।

তাই নিচে আমি আপনাদের কিছু টিপস দিয়ে দিচ্ছি যে গুলো ফলো করে আপনারা খুব সহজে কোয়ালিটি ও তথ্যবহুল কন্টেন্ট তৈরি করতে পারবেন।


  • ভিডিও কন্টেন্ট তৈরি করতে স্ক্রিপ্ট অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাই ভিডিও তৈরির আগে সুন্দর ও কার্যকর স্ক্রিপ্ট তৈরি করুন।
  • স্পেসিফিক অডিয়েন্সারের জন্য কন্টেন্ট তৈরি করুন।
  • কিছু ভিজুয়া দৃশ্য এড করুন।
  • সহজ ভাষায় কন্টেন্ট তৈরি করুন যাতে সবাই সহজে বুঝতে পারে। প্রয়োজনে বেশি বেশি উদাহরন দিন কারন র্দশকরা উদাহরন বেশি পছন্দ করেন।
  • সর্বদা নিজের ইউনিক কন্টেন্ট তৈরির চেষ্টা করুন। কারন আসল কন্টেন্টের গুরুত্ব আলাদা।


২/ চ্যানেল অপটিমাইজ করুন।

ইউটিউবে বেশি সাবস্ক্রাইব বাড়ানোর জন্য আপনার চ্যানেলকে আরো সুন্দরভাবে অপটিমাইজ ও আর্কষনীয় করে তুলুন। যেমন:-


  • চ্যানেলের হুম পেজকে সাজান।
  • সুন্দর ট্রেইলার তৈরি করুন।
  • চ্যানেলের লুকটা আর্কষনীয় করুন।
  • চ্যানেলের হুম পেজকে সাজান।


চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে চ্যানেলের হুম পেজ খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

আর তাই আপনি আপনার চ্যানেলের হুম পেজ কে সুন্দর ভাবে সাজাতে পারেন। যেমন:-সেকশন ও প্লে লিস্ট এড করে, স্যোশাল মিডিয়ার আইকন বা লোগো এড করে ইত্যাদি।


* সুন্দর ট্রেইলার তৈরি করুন।

চ্যানেলের সাবস্ক্রাইব বৃদ্ধির জন্য আপনি সুন্দর ট্রেইলার তৈরি করে পারেন। কারন আপনার ট্রেইলার দেখেই র্দশকরা আপনার চ্যালেন সর্ম্পকে জানতে পারবে। যেমন:-


  • আপনার ব্যান্ড সর্ম্পকে র্দশকরা জানতে পারবে।
  • কখন নতুন কোন ভিডিও আপলোড হবে তা জানতে পারবে।
  • চ্যানেলের ভিডিও টাইপ সর্ম্পকে জানতে পারবে।



* চ্যানেলের লুকটা আর্কষনীয় করুন।

সাবস্ক্রাইব বাড়ানোর জন্য চ্যানেলকে অপটিমাইজ করে সাজানো খুব জরুরি। সঠিক কিউওর্য়াড ব্যবহার করে এবাউট পেজ সাজাতে হবে।

চ্যানেল ডেসক্রিপশনে কল টু একশন বাটন এড করুন। যেমন :- আপনার ই-মেইল নম্বার ইত্যাদি। চ্যানেলের একটি কভার ফটো এড করুন।


৩/ আকর্ষনীয় থাম্বনেইল দিন।

চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়াতে ভিডিও আপলোড করার সময় সুন্দর ও আর্কষণীয় থাম্বনেইল ব্যবহার করুন।


কারন অনেক সময় দেখা যায় চ্যানেলে অনেক প্রয়োজনীয় ভিডিও আপলোড করার পর ও চ্যানেলে ভিজিটর আসেনা যার ফলে সাবস্ক্রাইব ও বৃদ্ধি পায়না। আর এটির কারন হলো আপনার থাম্বনেইল র্দশকদের আর্কষন করাতে পারে না।

কারন থাম্বলেইন যদি আর্কষণীয় হয় তবে দর্শকরা আপনার থাম্বলেইন দেখে ভিডিও ভিউ করে ভিডিও দেখে এবং ভালো লাগলে তারা চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করে রাখে।

ইউটিউবে যখন আপনার ভিডিও আসে তখন যদি আপনার থাম্বলেইন সুন্দর না হয় তবে কেউ আপনার ভিডিও ভিউ করবে না আর সাবস্ক্রাইব ও করবে না।


৪/ ভিডিওতে তাই দিন মানুষ যা খুঁজে।

ধরে আপনার ভিডিও শিরোনামে "ওয়ার্ডপ্রেস"হয় কিন্তু আপনার ভিডিওর প্রথম তিন মিনিট যদি ব্লগার সর্ম্পকে হয় তবে দর্শকরা ভিডিও সম্পূর্ণ না দেখে চলে যাব এবং চ্যানেলটি আর সাবস্ক্রাইব ও করবে না।


কিভাবে বুঝবেন দর্শকরা কি দেখতে চান?

আপনাদের একটি উদাহরন দিয়ে বুঝিয়ে দেই; কিছু টপিকের জন্য এটি বেশ সহজ। " কিভাবে ফুচকা তৈরি করবেন? "

এর মতো একটি বিষয়ের অর্থ হলো দর্শকরা ফুচকা তৈরি বিষয়ক কোন টিউটরিয়াল ভিডিও দেখতে চান।

আবার কিছু টপিকে এটি সহজ নয়। "পিসি ফুটবল গেইম" এখানে দর্শকরা কি দেখতে চান গেইম রিভিউ? না গেইমের তালিকা?

এটি বুঝার জন্য ইউটিউবে সার্চ করুন দেখুন সার্চ রেজাল্ট কোন পার্ট রেংক করছে। এবার আপনার ভিডিও রেংক করানোর জন্য অনুরোপ কিছু তৈরি করুন।


৫/ গিভওয়ে কন্টেন্টের আয়োজন করুন।

ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়ানোর একটি কার্যকর উপায় হলো গিভওয়ে। গিভওয়ের মাধ্যমে সহজেই আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলে অনেক সাবস্ক্রাইবার নিয়ে আসতে পারবেন।


গিভওয়ে কন্টেন্টের আয়োজন করা কিছু আইডিয়া আমি নিচে আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম।

  • প্রতিযোগিতার নিয়ম-কানুন নির্ধারন করুন।
  • প্রতিযোগিতার জন্য ভালো মানের পুরষ্কার নির্বাচন করুন।
  • আপনার গিভওয়ে কন্টেন্ট মার্কেটিং করুন।
  • ইউটিউব ইন্টারেক্টিভ ফিচারটি ব্যবহার করুন।
  • আপনার অনলাইন প্রতিযোগিতার জন্য একটি লক্ষ্য সেট করুন।



৬/ আকর্ষনীয় একটি টাইটেল দিন।

ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়ানোর জন্য একটি আর্কষনীয় টাইটেল খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

আপনার ভিডিও টাইটেল এসইওর কাজ করে তাই আপনাকে সুন্দর এবং ভিডিওর ধরন অনুযায়ী টাইটেল দিতে হবে।

কারণ ধরুন যদি ভিডিও টাইটেলে একটি বিষয়ে লিখলেন তখন দর্শকরা আপনার টাইটেল দেখে ভিডিও তে ক্লিক করে কিন্তু যদি টাইটেল অনুযায়ী ভিডিও না থাকে তবে দর্শকরা আপনার ভিডিও থেকে বেরিয়ে যাবে।

এবং তারা আপনার চ্যানেল ও সাবস্ক্রাইব করবে না। তাই ভিডিও বিষয়ের সাথে মিল রেখে টাইটেল সুন্দর এবং আর্কষনীয় টাইটেল ব্যবহার  করুন।



৭/ নিয়মিত ভিডিও আপলোড করুন।

ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়ানোর জন্য আপনাদের অবশ্যই নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে হবে।

তবে নিয়মিত বলতে এখানে যে প্রতিদিন ভিডিও ভিডিও আপলোড করতে হবে তা কিন্তু নয়। প্রতি সপ্তাহে আপনি যদি দুটো ভিডিও আপলোড করেন ; তবে কন্টিনিউ করতে হবে।

আর আপনি যদি নিয়মিত ভিডিও আপলোড না করে অনেক দিন পর পর ভিডিও আপলোড করেন তবে দর্শকরা আপনাকে ভুলে যাবে।

তাই আপনার উচিত প্রতি সপ্তাহে অন্তত দুই থেকে তিনটি ভিডিও আপলোড করতে হবে।

কারন স্যোশাল মিডিয়া যদি নিয়মিত ভিডিও আপলোড করেন ; তবে বেশি বেশি ইমপ্রেশন পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। নিয়মিত আপলোড করলে ইউটিউব আপনার কন্টেন্ট প্রমোট করবে।

আর নিয়মিত ভিডিও আপলোড করলে দর্শকদের আর্কষন বৃদ্ধি পায় এবং দর্শকরা আপনার চ্যানেল সাবস্ক্রাইব ও করবে বেশি বেশি।



৮/ চ্যানেলের বিষয় বস্তু ঠিক রাখুন।

শুধু মাত্র লোক কিছু অনুসন্ধান করছে, তার মানে এই নয় যে আপনাকে ও এই বিষয়ে একটি ভিডিও তৈরি করতে হবে।

একটি উদাহরন দিলে আপনাদের বুঝতে সুবিধা হবে, ধরুন আপনার এটি ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ক ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে এখানে ফ্রিল্যান্সিং বিভিন্ন টিউটরিয়াল আপলোড করা হয় কিন্তু হঠাৎ করে সেখানে কোন আলোচিত টপিকে ভিডিও আপলোড করলেন যেমন :- করোনা ভাইরাসে শার্টডাউন।


এতে হয়তো আপনি প্রচুর দর্শক পেয়ে যাবেন কিন্তু এটা মুঠেও কোন স্মার্ট প্রদক্ষেপ হতে পারে না। কারন এসইওর সাথে এর কোন যোগসূত্র নেই। আর এতে সাবস্ক্রাইবার দের সাথে প্রতারনা করা হবে।


তিনটি কারনে এই জিনিস ভালো নয়।


  • সাবস্ক্রাইবাররা তাদের পছন্দ এবং প্রয়োজনে এটি চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করে। তাই ফ্রিল্যান্সিং টিউটোরিয়াল চ্যানেলে তাদের কোন গসিপ, বানিং ইস্যুর প্রয়োজন নেই।

তাই অন্য বিষয়ে ভিডিও আপলোড করলে তারা তাতে বিরক্ত হয়ে চ্যানেল আনসাবস্ক্রাইব করতে পারে।


  • আর এই ধরনের ভিডিও আপলোড করলে সাবস্ক্রাইবাররা ডিজলাইক এবং নৈতিবাচক মন্তব্য করতে পারে। আর এতে আপনার চ্যানেল তার রেংকিং হারাতে পারে।
  • হঠাৎ করে আপনার চ্যানেলের বিষয় বস্তুর বাহিরের ভিডিও আপলোড করা হলে সাইডবারের রিলেটেড ভিডিও তালিকায় জামেলা হতে পারে।



শেষ কথা:-ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব বৃদ্ধি করার উপায়।

তো প্রিয় বন্ধুরা এই ছিল আমাদের আজকের আলোচনা কিভাবে ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব বাড়ানো যায়।


ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বৃদ্ধি করার ৮টি কার্যকর উপায় আপনাদের সাথে আমি এখানে শেয়ার করেছি।

ত আশা করছি পোষ্টটি পড়ে আপনারা সবাই অনেক উপকৃত হবেন। এবং আশা করছি উপরে উল্লেখিত সাবস্ক্রাইব বাড়ানোর উপায় গুলো অনুসরন করলে আপনাদের চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবের সংখ্যার বৃদ্ধি পাবে।

তো পোষ্টটি আপনাদের কাছে কেমন লেগেছে অবশ্যই নিচে টিউমেন্ট করে আপনাদের মূল্যবান মন্তব্য জানিয়ে দেবেন।

আর যদি পোষ্টটি ভালো লাগে তবে অবশ্যই বেশি বেশি করে বন্ধুদের সাথে এটি শেয়ার করুন। যাতে তারা ও তাদের চ্যানেলে সাবস্ক্রাব বৃদ্ধি করতে পারে।


আর বন্ধুরা আপনাদের যদি পোষ্টটি সর্ম্পকে কোন প্রশ্ন থাকে তবে অবশ্যই নিচে টিউমেন্ট করে আমাকে জানাতে পারেন। যতটা সম্ভব আমি চেষ্টা করব আপনাদের সাহায্য করার।


আর এত বড় টিউন এতক্ষন ধৈর্য ধরে মনোযোগ সহকারে পড়ার জন্য আপনাদের জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ। আবারো হাজির হয়ে যাব নতুন কোন টিউন নিয়ে আপনাদের সামনে।


তো বন্ধুরা আজ এই পর্যন্তই সবাই অনেক ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন, নিরাপদে থাকবেন আর আর আমার জন্য দোয়া করবেন।



আল্লাহ হাফেজ।

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব বৃদ্ধি করার উপায়।






Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url