আরকে রায়হান https://www.rkraihan.com/2021/12/kurbani-dewar-niyom.html

আকিকা শব্দের অর্থ কি? আকিকা দেওয়ার নিয়ম



আকিকা শব্দের অর্থ কি? আকিকা দেওয়ার নিয়ম - আকিকার দেওয়ার নিয়ম আমরা অনেকে জানিনা। তাই আপনাদের জানানো জন্য আমরা আকিকার দেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে আজকের পোস্ট নিয়ে হাজির হয়েছি। আকিকা দেওয়ার নিয়ম জানতে পুরো পোস্ট পড়ুন।
আকিকা শব্দের অর্থ কি? আকিকা দেওয়ার নিয়ম
আকিকা শব্দের অর্থ কি? আকিকা দেওয়ার নিয়ম

আকিকার দেওয়ার নিয়ম

আমরা অনেকেই আকিকার দেওয়ার নিয়ম সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে চিন্তিত । আকিকা কি, কেন করতে হয়, কিভাবে করতে হয়, না করলে কোন সমস্যা হবে কিনা এ ব্যাপারে স্বচ্ছ ধারণা পাবেন আশা করি আজকের পোস্টের মাধ্যমে । তাই সকলে দয়া করে মনোযোগ সহকারে আকিকার দেওয়ার নিয়ম পড়তে থাকুন। আকিকা দেওয়ার নিয়ম জানতে পুরো পোস্ট পড়ুন।

আকিকা শব্দের অর্থ কি?

আকিকা আরবি শব্দ । আকিকার অভিধানিক অর্থ ভেঙে ফেলা বা কেটে ফেলা ইত্যাদি । সন্তান জন্মের পর সপ্তম দিনে তার কল্যান কামনা করে আল্লাহর নামে কোন হালাল গৃহপালিত পশু জবাই করাকে আকিকা বলে । আকিকা দেওয়ার নিয়ম জানতে পুরো পোস্ট পড়ুন।

আকিকার দেওয়ার নিয়ম সন্তান জন্মের সপ্তম দিনেই দিতে হবে কি?

আসলে সপ্তম দিনে আকিকা করা মুস্তাহাব । এর অর্থ হলো আপনি চাইলেই করতে পারেন । তবে না পারলে ১৪ তম, ২১ তম অর্থাৎ প্রতি অতিরিক্ত ৭ দিন পর পর করা যাথা আকিকা দেওয়ার নিয়ম জানতে পুরো পোস্ট পড়ুন।

আকিকার দেওয়ার নিয়ম সুফল:-

মহানবি (স) নিজের আকিকা নিজে করেছেন । আকিকা করা সুন্নাত । তাই আকিকা করা ভালো । মহানবি (স)-এর আগেও আকিকার প্রচলন ছিল । আল্লাহর নির্দেশে তিনি এই প্রথা চালু রাখেন ।আকিকার মাধ্যমে আল্লাহর রহমত পাওয়া যায় । সন্তানের আপদ বিপদ দূর হয় । তাই প্রত্যেক পিতামাতার উচিত নিজ সন্তানের আকিকা করা । আকিকা দেওয়ার নিয়ম জানতে পুরো পোস্ট পড়ুন।

আকিকার দেওয়ার নিয়ম । অনেকে মনে করতে পারেন যে সন্তানেরা তো বড় হলে নিজেরা আকিকা করতে পারে 

আকিকার দেওয়ার নিয়ম- এরকম ধারণা করা উচিত নয় । কারণ প্রত্যেক পিতামাতার উচিত তার সন্তানের সঠিক ভাবে দেখা শোনা করা । আর আকিকা তার পরিচয় বহন করে । আর সন্তানরা যখন বড় হবে তারা তখন এ ব্যাপারে জানলে বাবা মাকে তাচ্ছিল্যের দৃষ্টিতে দেখতে পারে । তাই আগে আগে আকিকা করা উচিত । আকিকা দেওয়ার নিয়ম জানতে পুরো পোস্ট পড়ুন।

আকিকার দেওয়ার নিয়মঃ

আকিকার দেওয়ার নিয়ম - নাসায়ির এক সহিহ হাদিসে রয়েছে প্রতিটি নবজাতক সন্তানের সাথে আকিকা সম্পৃক্ত । তার জন্মের সপ্তম দিনে তার নামে পশু জবাই করতে হবে । তার নাম রাখা হবে ও তার মাথার চুল সম্পূণ কেটে দিতে হবে । আকিকা দেওয়ার নিয়ম জানতে পুরো পোস্ট পড়ুন।

  • আকিকার দেওয়ার নিয়ম সন্তান জন্মের সপ্তম দিনে ৪টি কাজ করা উত্তম । যথা __
  • সন্তানের ইসলামি নাম রাখতে হবে
  • মাথার চুল কাটা বা টাক করা
  • চুলের ওজন পরিমাণ সোনা বা রুপা দান করা ।
  • আকিকা করা ।

আকিকার দেওয়ার নিয়ম । পশুর বয়স

অন্যান্য ইবাদতের মতো আকিকা্র দেওয়ার নিয়ম রয়েছে । যে সকল পশু দ্বারা কুরবানি করা যায় সেই সকল পশু দ্বারা আকিকাও করা যায় । আকিকার পশুর বয়স কুরবানির পশুর বয়সের অনুরূপ হতে হবে । রাসুল (স) বলেছেন,”ছেলে সন্তানের জন্য দুটি ছাগল ও মেয়ে সন্তানের জন্য একটি ছাগল জবাই করা যথেষ্ঠ ।” আকিকা দেওয়ার নিয়ম জানতে পুরো পোস্ট পড়ুন।

তবে কুরবানির গরুর মধ্যে ছেলের জন্য দুই ও মেয়ের জন্য এক অংশ নেওয়া যেতে পারে ।

আকিকার দেওয়ার নিয়ম । বন্টন

আকিকা দেওয়ার নিয়ম- আকিকার পশুর গোশত কুরবানির পশুর গোশতের ন্যায় তিনভাগে ভাগ করতে হয় এবং বন্টন করতে হয় । এ গোশত পিতা মাতা সকলেই খেতে পারে । এমনকি গোশত রান্না করে গরিব মিশকিনদের ও আত্মীয় স্বজনদের খাওয়ানো যেতে পারে । চামড়া গরিবদের দান করে দিতে হয় । আকিকা দেওয়ার নিয়ম জানতে পুরো পোস্ট পড়ুন।

আকিকার দেওয়ার নিয়ম

আকিকা নিজ পিতার হাতে করা উত্তম । তবে অপারগ হলে অন্যকে দিয়ে করানো যেতে পারে । এটি একটি ইসলামিক পোস্ট । যদি কোন ভূল হয় তাহলে আমাকে ধরিয়ে দিবেন । আমি সংশোধন করার চেষ্টা করব । আকিকার দেওয়ার নিয়ম পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ ।


বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন:

0 Comments

Please read our Comment Policy before commenting. ??

Please do not enter any spam link in the comment box.

আরকে রায়হান নোটিফিকেশন