ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

আপনি কি গুগলে ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ খুজতেছেন? যদি ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ লিখে সার্চ করেন তাহলে হয়তো আমাদের সাইটে আস্তে পারেন। ভিশন ফ্রিজের দাম ২০২২ নিয়ে আজকের লেখা।
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২  ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২  ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

হ্যালো বন্ধুরা আমি আরকে রায়হান আপনাদের সাথে আজকের ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ বিয়ে আলোচনা করব। ফ্রিজ কেনার আগে আমরা গুগল এসে ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ লিখে সার্চ করি। হয়তো বা আমিও গত ঈদে ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ সার্চ করেছিলাম। কিন্তু ভালো ফলাফল কোথাও পায়নি। তাই আমি আজকে আপনাদের সাথে ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ লেখাটা শেয়ার করলাম।

ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

বর্তমানে বিশ্বের জন্য সবচেয়ে প্রয়োজনীয় উপকরণ ফ্রিজ। মানুষের নিত্যদিনের সঙ্গী এখন ফ্রিজ। আপনিও কি ফ্রিজের দাম এবং ভিশন ফ্রিজের নতুন মডেল সম্পর্কে জানতে চান? আপনি কি ভিশন ফ্রিজের বর্তমান দাম জানতে চান? নাকি কিস্তিতে ভিশন ফ্রিজ কেনার নিয়ম জানতে চান? আমি ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ - এর আপডেট করা দামের সাথে এই সমস্ত প্রশ্নের সমাধান নিয়ে এসেছি। তাই, ভিশন ফ্রিজ কিস্তি কেনার নিয়ম বা ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ সম্পর্কে জানতে এই পোস্টটি পড়তে থাকুন। 

দেশের অর্থনীতির উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের ক্রয়ক্ষমতাও বাড়ছে, তাই বেশিরভাগ মানুষই এখন বিভিন্ন মাধ্যমে ফ্রিজ কিনছেন। যারা ফ্রিজ কিনছেন তাদের রেফ্রিজারেটর কেনার আগে কিছু বিষয়ে সচেতন হতে হবে। প্রথমত, পরিবারের বা আপনার চাহিদা অনুযায়ী ফ্রিজের আকার নির্ধারণ করে ফ্রিজ কেনা উচিত। আপনার যদি পরিবারের সদস্য কম থাকে তবে একটি ছোট ফ্রিজ কিনুন। আর পরিবারের সদস্য বেশি থাকলে বড় ফ্রিজ কিনুন।

আপনার পরিবার ছোট, বড় বা মাঝারি যাই হোক না কেন, আপনি স্থানীয় ব্র্যান্ডের দৃষ্টিভঙ্গি সহ সাশ্রয়ী মূল্যে সবকিছুর সমাধান পাবেন। সব ধরনের এবং আকারের হিমায়ন দৃষ্টি উত্পাদন করে। তাই আজ আমরা আলোচনা করব Vision Fridge 2022 এর হালনাগাদ মূল্য, কিস্তিতে Vision Fridge কেনার নিয়ম বা ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ সম্পর্কে। সব তথ্য জানতে শেষ পর্যন্ত আমাদের সাথেই থাকুন। 

মানুষ ফ্রিজ কেনার ব্যাপারে দ্বিধাগ্রস্ত বলে মনে হচ্ছে । প্রথম চিন্তা ফ্রিজের দাম নিয়ে। এরপর সবাই ফ্রিজের রক্ষণাবেক্ষণের কথা ভাবেন। অনেকে মনে করেন যে ফ্রিজ রক্ষণাবেক্ষণ করা একটি ঝামেলা এবং কঠোর পরিশ্রম এবং কেনার পরে তারা এটি সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারে না। আরেকটা আইডিয়া হলো ফ্রিজ চালালে বিদ্যুৎ বিল অনেক বেশি। কিন্তু বাস্তবে, জিনিসগুলি বেশ ভিন্ন। মূলত, ফ্রিজ কেনার আগে ফ্রিজ সম্পর্কে একটু ধারনা থাকলে আপনাকে এসব নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। তাই সকল তথ্য সহজে আপনাদের সামনে তুলে ধরতেই আজকের পোস্ট। 

ভিশন ফ্রিজের দাম 2022 | ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

ভিশন বর্তমানে বাংলাদেশের অন্যতম বৃহত্তম ইলেকট্রনিক পণ্য প্রস্তুতকারক, তাই তাদের পণ্যের পোর্টফোলিও অফুরন্ত। দৃষ্টি প্রতিনিয়ত তাদের ফ্রিজে বিভিন্ন মডেল যুক্ত করছে এবং অনেক নতুন বৈশিষ্ট্য যোগ করছে। আপনি যদি এই নতুন মডেল এবং নতুন বৈশিষ্ট্যগুলি সংগ্রহ করতে চান তবে আপনাকে ভিশনের একটি নতুন মডেলের ফ্রিজ কিনতে হবে। তাই এখানে আমরা আপনাকে বিভিন্ন নতুন মডেলের ফ্রিজের সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করব। যার মাধ্যমে আপনি ভিশন ফ্রিজ কেনার সময় সবচেয়ে ভালো সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন।

ভিশন ডিপ ফ্রিজ প্রাইস 2022। ভিশন ফ্রিজের দাম 

ফ্রিজের দাম অনেকটাই নির্ভর করে ব্র্যান্ডের ওপর। আজকে আমরা 2022 সালে বাজারে বর্তমানে যে রেফ্রিজারেটর রয়েছে সেগুলির দাম নিয়ে আলোচনা করব। যেহেতু আপনি একটি ফ্রিজ কেনার কথা ভাবছেন, তাই আগের দাম বা পুরানো মডেল সম্পর্কে আপনাকে জানানোর কোন মানে নেই। বর্তমান বাজার মূল্য এবং সেই অনুপাতে ভিশন ফ্রিজে কী ধরনের ছাড় এবং কী ধরনের সুবিধা পাওয়া যায় তা জানতে হবে। আমরা আমাদের পোস্ট জুড়ে এই বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করব। 

আজকের ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা। ভিশনের তালিকায় বড় সাইজের ও দামি ফ্রিজ 

আপনাদের বোঝার সুবিধার জন্য, আমি মিনিস্টার ফ্রিজ 2022-এর মূল্য তালিকা নিয়ে এসেছি। এই পোস্টে আমরা মন্ত্রীর দশ, বারো এবং চৌদ্দটি নিরাপত্তা রেফ্রিজারেটরের দাম সম্পর্কে আলোচনা করব। নীচে মিনিস্টার ফ্রিজের মডেলের নাম ও গুণাবলী রয়েছে 

ভিশন ফ্রিজ 262 লিটার: Vision Bluemix 3D VIS-262G- VIS-262G মডেলের ভিশন ফ্রিজ বাজেটের সেরা ফ্রিজগুলির মধ্যে একটি। এটি একটি বড় পরিবারের জন্য বন্ধুবান্ধব ফ্রিজ। এই ফ্রিজে একটি গভীর শীর্ষ এবং একটি সাধারণ নীচে রয়েছে। Vision VIS-262G রেফ্রিজারেটরের মোট ক্ষমতা 262 লিটার। আকর্ষণীয় এই ফ্রিজের দাম 33000 টাকা। 
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২

ভিশন আইসক্রিম ফ্রিজার VIS 366L: আপনি এটি আপনার ব্যবসার জন্য কিনতে পারেন। বাংলাদেশে এই ফ্রিজের অফিসিয়াল মূল্য 52000 টাকা। অথবা আপনি প্রতি মাসে 4333 টাকা EMI অফারে কিনতে পারেন। 
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ
ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

ভিশন সাইড বাই সাইড ডোর রেফ্রিজারেটর SHR 566 L: বাংলাদেশে এই ফ্রিজের অফিসিয়াল মূল্য 79,900 টাকা। অথবা আপনি প্রতি মাসে 4300 টাকার EMI অফার দিয়ে কিনতে পারেন। আপনি একবারে সম্পূর্ণ মূল্য পরিশোধ না করে আপনার পরিবারের জন্য এই সাইড ডোর ফ্রিজটি কিনতে পারেন। আপনি একটি অফিসিয়াল ওয়ারেন্টিও পাবেন। 
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২

ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-121L রেড লিলি ফ্লাওয়ার নর: বাংলাদেশে এই ফ্রিজের অফিসিয়াল মূল্য 13,900 টাকা। অথবা আপনি প্রতি মাসে 1100 টাকার ইএমআই অফার দিয়ে কিনতে পারেন। একবারে সম্পূর্ণ মূল্য পরিশোধ না করে এই পাশের দরজার ফ্রিজটি কিনুন। আপনি একটি অফিসিয়াল ওয়ারেন্টিও পাবেন।
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২  ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২  ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

ভিশন ফ্রিজ 252 লিটার | ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-252 L SS BM – বাংলাদেশে এই ফ্রিজের অফিসিয়াল মূল্য 26,600 টাকা। অথবা আপনি প্রতি মাসে 2300 টাকা EMI অফারে কিনতে পারেন। একবারে সম্পূর্ণ মূল্য পরিশোধ না করে এই পাশের দরজার ফ্রিজটি কিনুন। আপনি একটি অফিসিয়াল ওয়ারেন্টিও পাবেন। 
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২  ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ
ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২  ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

ভিশন ফ্রিজ 262 লিটার | ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-262 L SS TM – বাংলাদেশে এই রেফ্রিজারেটরের অফিসিয়াল মূল্য 26,600 টাকা। অথবা আপনি প্রতি মাসে 2400 টাকার EMI অফার দিয়ে কিনতে পারেন। আপনি একবারে সম্পূর্ণ মূল্য পরিশোধ না করে আপনার পরিবারের জন্য এই সাইড ডোর ফ্রিজটি কিনতে পারেন। আপনি একটি অফিসিয়াল ওয়ারেন্টিও পাবেন। 

ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-262 L অরেঞ্জ ফ্লাওয়ারটিএম – বাংলাদেশে এই ফ্রিজের অফিসিয়াল মূল্য 26,800 টাকা। অথবা আপনি প্রতি মাসে 2400 টাকার EMI অফার দিয়ে কিনতে পারেন। আপনি একবারে সম্পূর্ণ মূল্য পরিশোধ না করে আপনার পরিবারের জন্য এই সাইড ডোর ফ্রিজটি কিনতে পারেন। আপনি একটি অফিসিয়াল ওয়ারেন্টিও পাবেন। 

ভিশন ফ্রিজ ১৮৫ লিটার | ভিশন ফ্রিজ ১৮০ লিটার দাম | ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২

সময়টা শীতকাল হোক বা গ্রীষ্মকাল রেফ্রিজারেটরের চাহিদা সবসময় থাকে।পরিবারের একজন সদস্যের মতো প্রয়োজনীয় একটি হোম অ্যাপ্লায়েন্স রেফ্রিজারেটর।রেফ্রিজারেটর কেনার সময় যে বিষয় গুলো খেয়াল রাখতে হয়, তা হল- ১. আবহাওয়া উপযোগী, ২. আধুনিক প্রযুক্তি, ৩. উন্নত কম্প্রেশর এবং ৪.গ্রীণ টেকনোলজি বা ক্ষতিকারক উপাদান বিহীন কিনা? আমাদের দেশি ব্র্যান্ড ভিশন তাদের রেফ্রিজারেটর গুলোতে এ সব কিছুই সরবরাহ করছে। ভিশন ব্র্যান্ডের ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-180L একটি সাশ্রয়ী মূল্যের রেফ্রিজারেটর মডেল।

গঠন (Structure): ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-180L র আয়তন-(W*D*H)-(572*662*1355)মিমি।এটি গ্লাস ডোর বিশিষ্ট মডেল । দুইটি কম্পার্ট্মেন্টে বিভক্ত।উপরে নরমাল রেফ্রিজারেটর এবং নিচে ডীপ ফ্রিজ। দুই অংশই সমান ভাগে বিভক্ত। টেম্পার্ট গ্লাস ডোরের ওপরে সুদৃশ্য ফুলের ডিজাইন। এই গ্লাস ডোর ফ্রিজের ওপর মরিচা বা দাগ পড়তে দেয় না। এই মডেলের নিট ধারণ ক্ষমতা ১৮০ লিটার।

টেকনোলজি (Technology): রেফ্রিজারেটর দেখতে যতই সুন্দর হোক না কেন এতে ব্যবহৃত টেকনোলজি এবং সার্ভিসই আসল। ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-180L তে এলজি ব্র্যান্ডের কম্প্রেশর ব্যবহার করা হয়েছে।সাথে থাকছে ১০ বছরের কম্রেশর ওয়ারেন্টি।এতে ব্যবহৃত হয়েছে ইতালির ক্যানন টেকনোলজি। রেফিজারেটরের ক্লাইমেট টাইপ এন/এসটি। যা সব আবহাওয়াতেই ব্যবহার উপযোগী।

বিশেষ বৈশিষ্ট্য (Special features): ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-180L এর যে মডেল গুলো অন্য যে কোন রেফ্রিজারেটর থেকে নিজেকে আলাদা করেছে তা জেনে নেয়া যাক। উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন কুলিং সিস্টেম যা কম ভোল্টেজেও খাবার রাখে সতেজ। এজন্য এটি ৬০% বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী। এই মডেলের কম্প্রেশর খুব মৃদু আওয়াজ তৈরি করে যা বিরক্তির কারণ হবে না।এতে ব্যবহৃত প্রতিটি ম্যটেরিয়াল ১০০% ফুড গ্রেডের যা খাবার রাখে নিরাপদ। ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-180L এর R600a রেফ্রিজারেন্ট গ্যাস ক্ষতিকারক HEC ফ্রি। সি প্যান্টিন ফোমিং এজেন্ট FCKW ফ্রি। পরিবেশ বান্ধব এই রেফ্রিজারেটর ব্যবহারে আপনি এবং আপনার পরিবেশ থাকবে দূষণমুক্ত ও বসবাস উপযোগী।

সাধারণ বৈশিষ্ট্য (General Features): ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-180L এর কন্ডেন্সার ১০০% কপার এর তৈরি। এতে অ্যাডজাস্টেবল থার্মোস্ট্যাট আছে।আপনার যদি তাপমাত্রা কম বা বেশি করার প্রয়োজন পড়ে তাহলে আপনি নব ঘুরিয়ে তাপমাত্রা কম বেশি করতে পারবেন। ভেতরে পর্যাপ্ত জায়গা আছে এবং ইন্টেরিয়র লাইট আছে।আপনার প্রয়োজনে ব্যবহারের জন্য লক এবং কি আছে। এছাড়াও ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-180L এ তিন লেয়ার গ্যাস্কেট থাকার ফলে তা ব্যক্টেরিয়ার আক্রমণ থেকে সুরক্ষিত থাকে।

বৈদ্যুতিক বৈশিষ্ট্য (Electric Features): ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-180L  স্বক্রীয় হতে ৮০-৮৫ ওয়াট,১৬০ থেকে ২৬০ ভোল্ট। এই পাওয়ার আমাদের বাড়িতে সরবরাহকৃত ২২০ ভোল্ট এবং ৫০ হার্জ যথেষ্ট।

মূল্য এবং শো-রুম (Price and show-room) ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-180L মডেলটি আপনার শহরের ভিশন ইম্পোরিয়াম বা ভিশন অনুমোদিত হোম অ্যাপ্লায়েন্সের শো-রুমে পাবেন। বাড়িতে থেকে অনলাইনে পণ্য কিনতে ভিশনের অনলাইন শপ-এ লগ ইন করতে পারেন। ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-180L এর মূল্য ২৪,৮০০ টাকা।

ভিশন ফ্রিজ ১২১ লিটার | ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজের দাম 2022 | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

এই সময় কোন ঋতু চলছে এটা কোন ব্যাপার না? ফ্রিজ একটি বাধ্যতামূলক এক বেশিক্ষণ খাবার নিরাপদ ও স্বাস্থ্যকর রাখার পাশাপাশি রেফ্রিজারেটর আপনার ঘরের সৌন্দর্যও বাড়ায়। বাজারে বিভিন্ন ফিচার ও স্টোরেজ ক্ষমতা সহ বেশ কয়েকটি মডেলের ফ্রিজ পাওয়া যাচ্ছে। তাদের মধ্যে আপনি আপনার একটি নির্বাচন করতে পারেন.

সাম্প্রতিক সময়ে ভিশন নিয়ে এসেছে নতুন ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-121 । এটি একটি ছোট আকারের রেফ্রিজারেটরের মডেল যার সর্বোচ্চ স্টোরেজ ক্ষমতা 121 লিটার। রেফ্রিজারেটরের এই সিঙ্গেল ডোর ডাইরেক্ট কুলিং মডেলে খাবারকে সঠিক তাপমাত্রায় রাখার জন্য বেশ কিছু জায়গা রয়েছে।

এই মডেলের কিছু মৌলিক বৈশিষ্ট্য নিচে দেওয়া হল।
পেশাদার,

  • এটি সর্বাধিক স্টোরেজ ক্ষমতা সহ রেফ্রিজারেটরের একক দরজার মডেল। এই মডেলটি সহজেই আপনার জায়গায় সহজেই সেট করা যায়।
  • R600a এর আধুনিক কুলিং রেফ্রিজারেন্ট সহ কম শব্দ সংকোচকারী। খাবারকে দীর্ঘ সময়ের জন্য নিরাপদ রাখার পাশাপাশি বিদ্যুৎ শক্তি বাঁচাতে এটি রেফ্রিজারেন্টের সর্বশেষ মডেল।
  • এই মডেলের গহ্বরের অভ্যন্তরে ভাল পর্যাপ্ত জায়গা রয়েছে যাতে দীর্ঘ সময়ের জন্য নিরাপদে খাবার রাখা যায়।
  • এটি সাশ্রয়ী মূল্যের মধ্যে একটি উপলব্ধ মডেল।

অসুবিধা,

  • এটি ফ্রিজের ছোট আকারের মডেল। তাই আপনাকে আপনার স্টোরেজের স্থান সামঞ্জস্য করতে হবে।

নকশা এবং মাত্রা

ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-121 হল একটি মিনি সাইজ অফ হোয়াইট কালার মডেল যার সর্বোচ্চ স্টোরেজ ক্ষমতা 121 লিটার। রেফ্রিজারেটরের এই একক দরজার মডেলটিতে খাবারটি সুন্দরভাবে রাখার জন্য গহ্বরের ভিতরে বেশ কয়েকটি স্তর রয়েছে। এটি আপনার নৈশভোজের পাশাপাশি আপনার অফিস কেবিনে মডেলটি স্থাপন করার জন্য পুরোপুরি ডিজাইন। গোড়ায় শক্ত চার পা দেওয়া আছে নিরাপদ রাখার জন্য। এই মডেলের মোট ওজন 33 কেজি এবং মাত্রা 590X550X768 মিমি। যাতে আপনি সহজেই এই মডেলটিকে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় সহজেই সরাতে পারেন।

উপলব্ধ বৈশিষ্ট্য

এটি একটি আধুনিক বৈশিষ্ট্যযুক্ত রেফ্রিজারেটরের মডেল যা ব্যবহারকারী বান্ধব ভবিষ্যত বৈশিষ্ট্য দিয়ে সজ্জিত। এই মডেলের কিছু মৌলিক বৈশিষ্ট্য নিচে দেওয়া হল।

  • R600a রেফ্রিজারেন্ট: এটি পরিবেশ বান্ধব বৈশিষ্ট্য সহ একটি আধুনিক শীতল রেফ্রিজারেন্ট। এই রেফ্রিজারেন্ট খাদ্য নিরাপদ রাখতে আপনার গহ্বরে সর্বাধিক শীতল প্রদান করতে যথেষ্ট সক্ষম। তাছাড়া, এই রেফ্রিজারেন্টের নিখুঁত শীতল ক্ষমতা রয়েছে যা পাওয়ার শক্তি পরিচালনা করে এবং আপনার বিদ্যুৎ বিলকে সাশ্রয়ী সীমার মধ্যে রাখে।
  • 100 কপার কনডেন্সার: এটি একটি 100% কপার কনডেন্সার তৈরি কুলিং সিস্টেম মেশিন যা সমস্ত গহ্বর জুড়ে সঠিক শীতল বায়ু প্রবাহ সম্পর্কে নিশ্চিত করে।
  • সামঞ্জস্যযোগ্য থার্মোস: এই মডেলটিতে প্রয়োজন বা আবহাওয়ার অবস্থা অনুসারে শীতলকরণ পরিচালনা করার জন্য সামঞ্জস্যযোগ্য থার্মোস সিস্টেম রয়েছে।
  • অভ্যন্তরীণ সজ্জা: এই মডেলটি সুন্দর অভ্যন্তর দিয়ে সজ্জিত এবং পাশাপাশি খাবার নিরাপদ এবং সংগঠিত রাখার জন্য যথেষ্ট জায়গা রয়েছে।
  • পাওয়ার এনার্জি: এই মডেলটিতে ইনভার্টার সিস্টেম রয়েছে যা গহ্বরে সর্বাধিক শীতল করার জন্য সর্বনিম্ন শক্তি শক্তি ব্যবহার করে।

মূল্য এবং প্রাপ্যতা

ভিশন বেশ কিছু যন্ত্রপাতির মডেল সহ একটি বিখ্যাত ব্র্যান্ড। এই ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-121 সাশ্রয়ী মূল্যের মধ্যে ভবিষ্যত বৈশিষ্ট্য সহ একটি উপলব্ধ মডেল এবং সহজেই ভিশনের আপনার নিকটতম অ্যাপ্লায়েন্সের শোরুমগুলিতে পাওয়া যায়। ভিশন রেফ্রিজারেটর RE-121 এর দাম 14700 টাকা।

ভিশন ফ্রিজ ২২২ লিটার | bangladesh ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা | ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

ভিশন রেফ্রিজারেটর ভিআইএস-২২২ এল হল সাধারণ টাওয়ার ডাবল ডোর ডাইরেক্ট কুলিং মডেল ফ্রীজের ভবিষ্যত বৈশিষ্ট্য সহ। এই মডেলের মোট ধারণক্ষমতা 222 লিটার এবং খাবার পচা থেকে নিরাপদ রাখতে মোট জায়গাটি সঠিকভাবে বিতরণ করা হয়েছে। এটি একটি উপলব্ধ মডেল. এক নজরে এই মডেলের কিছু মৌলিক বৈশিষ্ট্য দেখে নেওয়া যাক।

পেশাদার,

  • এটি রেফ্রিজারেটরের একটি গ্রাফিক্যাল আকর্ষণীয় আউট লুকিং মডেল। এই ডবল ডোর মডেলগুলি অবশ্যই আপনার ঘরের সাজসজ্জার যত্ন নেবে।
  • গরম এবং আর্দ্র গ্রীষ্মে উভয় বগিকে সঠিকভাবে ঠান্ডা রাখার জন্য এই মডেলটিতে বিশুদ্ধ কুলিং ফাংশন সহ 100% কপার কনডেন্সার রয়েছে।
  • এটি একটি CFC এবং HCFC গ্যাস মুক্ত মডেলটিতে R600a রেফ্রিজারেন্ট রয়েছে।
  • এটি বেশ কয়েকটি স্টোরেজ স্তর দিয়ে সজ্জিত প্রশস্ত স্থান সহ একটি উপলব্ধ মডেল।
  • আপনি সহজেই এই মডেলটি আপনার নিকটস্থ অ্যাপ্লায়েন্সের শোরুমে দেখতে পারেন।
  • অসুবিধা,
  • ওজনের পরিপ্রেক্ষিতে, এটি রেফ্রিজারেটরের একটি ভারী ওজনের মডেল এবং স্টোরেজ ক্ষমতা আপনার মধ্য স্তরের পরিবারকে সমর্থন করার জন্য সর্বাধিক খাবার সংরক্ষণের অনুমতি দেয় না।

নকশা এবং মাত্রা

ভিশন রেফ্রিজারেটর ভিআইএস-222 এল একটি টাওয়ার আকৃতির মডেল যার ডবল দরজা রয়েছে। এতে গ্রাফিকাল আউটলুক সহ চকচকে রঙের দরজা রয়েছে। এই মডেলটি শুধুমাত্র আপনার খাবারকে নিরাপদ রাখবে না বরং আপনার জায়গার সৌন্দর্যও বাড়াবে। বাহ্যিক সজ্জার পাশাপাশি অভ্যন্তরীণ সজ্জাও আকর্ষণীয়। আসল সুগন্ধ এবং পরীক্ষা সহ খাবার আলাদাভাবে সংরক্ষণ করার জন্য এটিতে বেশ কয়েকটি বাক্স রয়েছে। এই টাওয়ার আকৃতির মডেলটি রাখতে খুব বেশি জায়গা লাগবে না। এটির মাত্রা হল 590 X 550 X 1473 মিমি। তাই এই মডেলটি আপনার জায়গায় সহজেই স্থাপন করা যেতে পারে। এই মডেলটির মোট ওজন 55 কেজি যা এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাওয়া সহজ নয়।

ধারণ ক্ষমতা

এই মডেলের মোট স্টোরেজ ক্ষমতা 222 লিটার। এই স্টোরেজ ক্ষমতা প্রায় সমানভাবে বিতরণ করা হয় রেফ্রিজারেটিং বিভাগে 121 লিটার এবং ফ্রিজার বিভাগে 101 লিটার। পুরো রেফ্রিজারেটরটি বেশ কয়েকটি স্তরের বাক্স এবং খাদ্য স্টোরেজ বক্স দিয়ে সজ্জিত। এই বাক্সটি খাবারের সুগন্ধ এবং এর পরীক্ষাকে অনন্যভাবে রাখবে।

উপলব্ধ বৈশিষ্ট্য

এই মডেল ভবিষ্যত বৈশিষ্ট্য তৈরি করা হয়. তাই সেই খাবারগুলো সঠিক অবস্থায় থাকে। তাই এই যন্ত্রটিকে স্মার্ট অ্যাপ্লায়েন্স বলা হয়। এই মডেলের উপলব্ধ কিছু বৈশিষ্ট্য নীচে দেওয়া হল.

  • ন্যানো প্রযুক্তি: এটি একটি ন্যানো প্রযুক্তি যা রেফ্রিজারেটরের মডেল। এই প্রযুক্তি খাবারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে এবং খাবারের কোনো পরীক্ষা ও ভিটামিনের ব্যাঘাত না ঘটিয়ে খাবারকে পচা হতে বাধা দেয়।
  • নো ফ্রস্ট: এটি রেফ্রিজারেটরের একটি নন-ফ্রস্ট মডেল যা খাবারকে হিম না বানিয়ে উচ্চ শীতল তাপমাত্রায় নিরাপদ রাখে। এটি গহ্বর থেকে নিরাপদে খাবার বের করতেও সাহায্য করে।
  • মাল্টি এয়ার ফ্লো: রেফ্রিজারেটরের অন্যান্য মডেলের বিপরীতে এই মডেলের উভয় গহ্বরে একাধিক বায়ু প্রবাহিত পাখা রয়েছে যাতে উভয় বগিতে বায়ু প্রবাহিত হয়।
  • ইন্টেলিজেন্স ইনভার্টার সিস্টেম: এতে রয়েছে ইন্টেলিজেন্স ইনভার্টার সিস্টেম যা পাওয়ারের সম্পূর্ণ ব্যবহার সঠিকভাবে করে। তাই মাস শেষে সীমার বেশি বিদ্যুৎ বিল পাবেন না। এই প্রযুক্তিটি প্রয়োজনের সময় ইঞ্জিন চালু করে এবং বিদ্যুৎ বিল সীমার মধ্যে রাখার বিষয়ে নিশ্চিত করে।
  • ভাল সাজসজ্জা: উভয় গহ্বর বেশ কয়েকটি স্তর এবং পকেট ঝুড়ি দিয়ে সজ্জিত করা হয়েছে যাতে খাবারের সঠিক বিতরণের পাশাপাশি গহ্বরের পরিষ্কার দৃষ্টিভঙ্গির জন্য বেশ কয়েকটি এলইডি আলো রয়েছে।  

বৈদ্যুতিক বৈশিষ্ট্য 

এটি দৈনিক যন্ত্রপাতির একটি উচ্চ শক্তি গ্রাসকারী মডেল। অন্যান্য যন্ত্রপাতি থেকে ভিন্ন রেফ্রিজারেটর আমাদের বাড়িতে সারা দিন চলে। তাই মাস শেষে উচ্চ বিদ্যুতের বিল পাওয়া স্বাভাবিক। এই রেফ্রিজারেটরগুলি 220v থেকে 230V এর স্বাভাবিক ভোল্টেজের সাথে চলে এবং শুধুমাত্র সর্বনিম্ন শক্তি শক্তি খরচ করে। তাই আপনার বিদ্যুৎ বিল মাস শেষে সীমার মধ্যেই থাকবে।  

মূল্য এবং প্রাপ্যতা

ভিশন রেফ্রিজারেটর VIS-222 L হল ডাবল ডোর রেফ্রিজারেটরের একটি কালো রঙের মডেল যা আপনার নিকটস্থ অ্যাপ্লায়েন্সের শোরুমে সাশ্রয়ী মূল্যের মধ্যে পাওয়া যাবে। ভিশন রেফ্রিজারেটর VIS-222 L এর দাম 27300 টাকা ।

ভিশন ফ্রিজ ২৩৮ লিটার | bangladesh ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা | ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ

আমাদের দৈনন্দিন জীবনের একটি মৌলিক যন্ত্রপাতি হল রেফ্রিজারেটর। দিন দিন ফ্রিজের চাহিদা দ্রুত বাড়ছে। গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী গ্রাফিকাল আউটলুকসহ আকর্ষণীয় ফিচারিং মডেলের ফ্রিজ উৎপাদন করছে প্রতিষ্ঠানগুলো।
সাম্প্রতিক সময়ে ঈদ ভিশনের পণ্য হিসেবে সাশ্রয়ী মূল্যে নতুন ভিশন রেফ্রিজারেটর ভিআইএস-২৩৮ এল ফ্রিজ নিয়ে এসেছে। এটি একটি 238 লিটার ক্ষমতাসম্পন্ন রেফ্রিজারেটরের বেস মডেল যা চমৎকার অভ্যন্তরীণ সজ্জা এবং খাবারকে পচা এবং ব্যাকটেরিয়া থেকে নিরাপদ রাখতে বেশ কয়েকটি স্তর সহ। এক নজরে এই মডেলের কিছু মৌলিক বৈশিষ্ট্য দেখে নেওয়া যাক।

পেশাদার,

  • নিঃসন্দেহে এই মডেলের রেফ্রিজারেটরের গ্রাফিকাল আউটলুক আপনার জায়গাকে আকর্ষণীয় রাখার পাশাপাশি খাবারের মান নিশ্চিত করবে।
  • এটি একটি টেকসই গ্যাসকেট তৈরি ডাবল ডোর রেফ্রিজারেটর যা পানীয়ের বোতলগুলির সাথে নিরাপদে খাবার রাখতে বেশ কয়েকটি স্তর সহ।
  • এটি একটি ক্ষতিকারক CFC এবং HCFC গ্যাস মুক্ত মডেল। এতে রয়েছে ইকো ফ্রেন্ডলি R600a রেফ্রিজারেন্ট। সুতরাং এটি গরম এবং আর্দ্র গ্রীষ্মে আপনার খাবারকে নিরাপদ রাখতে যথেষ্ট ভাল ঠান্ডা বাতাস সরবরাহ করবে।
  • এটি আপনার নিকটতম অ্যাপ্লায়েন্স শোরুমে পেতে সাশ্রয়ী মূল্যের মধ্যে একটি উপলব্ধ মডেল।
  • অসুবিধা,
  • এই মডেল সম্পর্কে উল্লেখ করার মতো বিশেষ কিছু নেই। এটি এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাওয়ার জন্য একটি ভারী ওজনের মডেল।

নকশা এবং মাত্রা

ভিশন রেফ্রিজারেটর ভিআইএস-২৩৮ এল একটি সাধারণ টাওয়ার আকৃতির রেফ্রিজারেটরের মডেল যা ভবিষ্যত বৈশিষ্ট্যযুক্ত। এটি আপনার খাবারকে নিরাপদ রাখবে এবং আপনার জায়গাটিকে একটি অসামান্য দৃষ্টিভঙ্গি দেবে। চকচকে অসামান্য ফিনিশিং এর সাথে সাথে বডির ইন্টেরিয়র ডেকোরেশনও অসাধারন কিছু লেয়ার সহ খাবার নিরাপদ রাখতে। আসল সুগন্ধযুক্ত খাবার আলাদা করে রাখার জন্য বেশ কিছু বক্স দেওয়া আছে। রেফ্রিজারেটরের এই মডেলের মোট মাত্রা হল 590 X 550 X 1591। এই মডেলের মোট ওজন হল 66 কেজি। এটি একটি ভারী ওজন মডেল এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় সরানো.

ধারণ ক্ষমতা

এই মডেলের মোট স্টোরেজ ক্ষমতা 238 লিটার। মোট স্টোরেজ ক্ষমতা দুটি বিভাগের মধ্যে প্রায় সমানভাবে বিতরণ করা হয়। সাধারণ বিভাগে 131 লিটার এবং হিমায়িত বিভাগে 107 লিটার স্টোরেজ ক্ষমতা রয়েছে। মোট এলাকাটি বেশ কয়েকটি স্তর এবং বাক্স দিয়ে সজ্জিত করা হয়েছে যাতে খাবারকে আসল সুগন্ধের সাথে নিরাপদ রাখা হয় এবং পরীক্ষা এবং এর ভিটামিনকে বিরক্ত না করে।

উপলব্ধ বৈশিষ্ট্য

এই মডেলের সমস্ত বৈশিষ্ট্য ভবিষ্যত বৈশিষ্ট্যগুলির সাথে সজ্জিত। তাই এই মডেলটি স্মার্ট অ্যাপ্লায়েন্স হিসেবে পরিচিত। এই মডেলের কিছু আকর্ষণীয় বৈশিষ্ট্য নিচে দেওয়া হল।

  • সর্বোচ্চ সঞ্চয়স্থান: এটি একটি সর্বোচ্চ 231 লিটার স্টোরেজ ক্ষমতার রেফ্রিজারেটরের বেস মডেল যা বিভিন্ন বগি সহ খাবারকে আসল সুগন্ধ এবং পরীক্ষা করে ধরে রাখতে পারে। এই মডেলটি আপনাকে শুধুমাত্র সেই দরজাটি খুলতে দেয় যা আপনি খুলতে চান।
  • ন্যানো প্রযুক্তি: এটি একটি ন্যানো প্রযুক্তি যা রেফ্রিজারেটরের মডেল। এই প্রযুক্তি খাবারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে এবং খাবারের কোনো পরীক্ষা ও ভিটামিনের ব্যাঘাত না ঘটিয়ে খাবারকে পচা হতে বাধা দেয়।
  • নো ফ্রস্ট: এটি রেফ্রিজারেটরের একটি নন-ফ্রস্ট মডেল যা খাবারকে হিম না বানিয়ে উচ্চ শীতল তাপমাত্রায় নিরাপদ রাখে। এটি গহ্বর থেকে নিরাপদে খাবার বের করতেও সাহায্য করে।
  • মাল্টি এয়ার ফ্লো: রেফ্রিজারেটরের অন্যান্য মডেলের বিপরীতে এই মডেলের উভয় গহ্বরে একাধিক বায়ু প্রবাহিত পাখা রয়েছে যাতে উভয় বগিতে বায়ু প্রবাহিত হয়।
  • ইন্টেলিজেন্স ইনভার্টার সিস্টেম: এতে রয়েছে ইন্টেলিজেন্স ইনভার্টার সিস্টেম যা পাওয়ারের সম্পূর্ণ ব্যবহার সঠিকভাবে করে। তাই মাস শেষে সীমার বেশি বিদ্যুৎ বিল পাবেন না। এই প্রযুক্তিটি প্রয়োজনের সময় ইঞ্জিন চালু করে এবং বিদ্যুৎ বিল সীমার মধ্যে রাখার বিষয়ে নিশ্চিত করে।
  • ভাল সাজসজ্জা: উভয় গহ্বর বেশ কয়েকটি স্তর এবং পকেট ঝুড়ি দিয়ে সজ্জিত করা হয়েছে যাতে খাবারের সঠিক বিতরণের পাশাপাশি গহ্বরের পরিষ্কার দৃষ্টিভঙ্গির জন্য বেশ কয়েকটি LED আলো রয়েছে।  

বৈদ্যুতিক বৈশিষ্ট্য 

এটি দৈনিক যন্ত্রপাতির একটি উচ্চ শক্তি গ্রাসকারী মডেল। অন্যান্য যন্ত্রপাতি থেকে ভিন্ন রেফ্রিজারেটর আমাদের বাড়িতে সারা দিন চলে। তাই মাস শেষে উচ্চ বিদ্যুতের বিল পাওয়া স্বাভাবিক। এই রেফ্রিজারেটরগুলি 220v থেকে 230V এর স্বাভাবিক ভোল্টেজের সাথে চলে এবং শুধুমাত্র সর্বনিম্ন শক্তি শক্তি খরচ করে। তাই আপনার বিদ্যুৎ বিল মাস শেষে সীমার মধ্যেই থাকবে।  

মূল্য এবং প্রাপ্যতা

ভিশন রেফ্রিজারেটর VIS-238 L হল ডাবল ডোর রেফ্রিজারেটরের একটি কালো রঙের মডেল যা আপনার নিকটস্থ অ্যাপ্লায়েন্সের শোরুমে সাশ্রয়ী মূল্যের মধ্যে পাওয়া যাবে। ভিশন রেফ্রিজারেটর VIS-238 L এর দাম 28300 টাকা ।

ভিশন ফ্রিজ কিস্তিতে কেনার নিয়ম 

আপনি যদি কিস্তিতে ভিশন ফ্রিজ কিনতে চান তাহলে আপনাকে প্রথমে সরাসরি ভিশন শোরুমে যেতে হবে। তারপর তাদের সাথে আলোচনা করুন যে আপনি তাদের কাছ থেকে কিস্তিতে ফ্রিজ কিনতে চান তাহলে সেই শোরুমের সেলস ম্যান আপনার জন্য সব ব্যবস্থা করে দেবেন। যাইহোক, ফ্রিজ কেনার সময় আপনাকে অবশ্যই 40% ডাউন পেমেন্ট করতে হবে। এর মানে হল যে আপনাকে প্রথমে ফ্রিজের বাজার মূল্যের 40% জমা করতে হবে এবং তারপরে বাকি 80% কিস্তিতে পরিশোধ করতে হবে। অনেক সময়, আপনি কিস্তিতে ফ্রিজ কিনলে আপনাকে ছাড়ও দেওয়া হবে। 

আর্টিকেলের শেষকথাঃ ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ
বন্ধুরা আমরা এতক্ষন জানলাম ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২ | ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ। যদি আজকের এই লেখাটি আপনাদের ভালো লাগে তাহলে নিচে কমেন্ট ও বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে ভুল্বেন না। আর এই রকম নিত্য নতুন আর্টিকেল পেতে আমাদের আরকে রায়হান ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।
আরো দেখুন
1 Comments
  • Yasin Ali
    Yasin Ali 16 June

    সুন্দর পোস্ট

Add Comment
comment url