বাংলাদেশ জাতিসংঘের কততম সদস্য

বাংলাদেশ ও জাতিসংঘের এক গভীর সম্পর্ক রয়েছে। বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম সৈন্যদাতা দেশ।নিউ ইয়র্ক সিটিতে জাতিসংঘ সদর দফতরে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে। যার নেতৃত্বে রয়েছে জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি। রাবাব ফাতিমা জাতিসংঘে বাংলাদেশের বর্তমান স্থায়ী প্রতিনিধি। জেনেভাতে জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন জেনেভা ভিত্তিক জাতিসংঘের অঙ্গগুলির প্রতি বাংলাদেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ের প্রতিনিধিত্ব করে। ভিয়েনায় ভিয়েনার জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে।

বাংলাদেশ জাতিসংঘের কততম সদস্য


বাংলাদেশ জাতিসংঘের কততম সদস্য

১৯৭২ এবং ১৯৭৩ সালে বাংলাদেশ জাতিসংঘের সদস্য হতে ব্যর্থ হয়েছিল কারণ চীন পাকিস্তানের পক্ষে ভেটো ব্যবহার করে বাংলাদেশে পূর্ণ সদস্যপদ প্রাপ্তি রোধ করেছিল। ১৯৭৪ সালের ১ সেপ্টেম্বর, বাংলাদেশ জাতিসংঘের পূর্ণ সদস্যপদ লাভ করে। বাংলাদেশ জাতিসংঘের  ১৩৬ তম সদস্য।


বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা

১৯৭১ সালে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধের সময় জাতিসংঘ এবং এর সংস্থাগুলি বাংলাদেশে ত্রাণ এনেছিল। জাতিসংঘ মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশী শরণার্থীদের সহায়তা প্রদান করেছিল। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ২৬ তম অধিবেশনের সময় বাংলাদেশের প্রাদেশিক সরকার ১৯৭১ সালের ২১ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে রাষ্ট্রদূত প্রেরণ করেন। ১৯৭১ সালের অক্টোবরে, একজন বাংলাদেশী প্রতিনিধি জাতিসংঘের প্লাজায় বক্তব্য রাখেন এবং ঘোষণা করেন যে "মুক্তিযুদ্ধ পয়েন্ট অব নো রিটার্নে" পৌঁছেছে। ১৯৭১ সালের ৪ ডিসেম্বর বাংলাদেশের জাতিসংঘে প্রথম সরকারী প্রতিনিধি ছিল। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ইউনিসেফ এবং ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম শরণার্থীদের সহায়তা প্রদান করেছিল।

১৯৭১ সালের ১৭ জুলাই জাতিসংঘ পূর্ব পাকিস্তান ত্রাণ কার্যক্রম (ইউএনইপিআরও) প্রতিষ্ঠা করে। শুরুতে জন আর কেলির নেতৃত্বে এই অপারেশন করেছিলেন এবং পরে পল ম্যাকি হেনরি তার স্থলাভিষিক্ত হন। একাত্তরের ১৬ ই নভেম্বর, অব্যবস্থাপনার কারণে পূর্ব পাকিস্তানের বেসামরিক প্রশাসনের কাছ থেকে এই অভিযানটি জাতিসংঘ পুরোপুরি দখল করে নেয়। এটি পূর্ব পাকিস্তান প্রশাসনের সরকারী কর্মচারীদের নৈতিকতাকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছিল। ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের স্বাধীনতার পরে ২১ ডিসেম্বর জাতিসংঘ ঢাকায় জাতিসংঘের রিলিফ অপারেশনস (ইউএনআরডি) তৈরি করে। যেটির পরিচালনায় ছিলেন রবার্ট জ্যাকসন। যা বাংলাদেশে জাতিসংঘের রিলিফ অপারেশনগুলিতে উন্নীত হয়েছিল (ইউএনআরওবি)। অপারেশনটি ১৯ ৭৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হয়েছিল।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url