আরকে রায়হান https://www.rkraihan.com/2021/12/virtual-.html

ভার্চুয়াল র‍্যাম কি ? Virtual Ram কিভাবে কাজ করে?



র‍্যাম এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস যা প্রতিটি স্মার্টফোনেই থাকে এবং বেশিরভাগ মানুষই এটা জানে। যাইহোক, ভার্চুয়াল র্যাম(virtual ram) বা এক্সটেন্ডেড র্যাম (extended ram) তুলনামূলকভাবে নতুন একটি ফিচার।(স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে)


ভার্চুয়াল র‍্যাম, virtual ram, virtual ram android, virtual ram windows 10, virtual ram download, virtual ram xiaomi, virtual ram meaning, virtual ram samsung, virtual ram windows 7, virtual ram android no root, ভার্চুয়াল র্যাম
ভার্চুয়াল র‍্যাম কি  Virtual Ram কিভাবে কাজ করে

Virtual RAM, dynamic RAM expansion, extended RAM সব‌গুলো এক‌ই জিনিস,কাজ‌ও এক‌ই শুধু নাম গুলো আলাদা ব্যান্ড অনুযায়ী।আজ চেষ্টা করব বুঝানোর জন্যে।

সর্বপ্রথম ভিভো তাদের vivo x60 সিরিজের ফোন গুলোতে এই ফিচারটি চালু করে। তারপর পর্যায়ক্রমে realme,,xiaomi,, oppo,, OnePlus,, iQOO ইত্যাদি ব্যান্ড‌গুলোও এক‌ই ফিচার বিভিন্ন নামে ব্যবহার করা শুরু করে।

Virtual RAM কি?

ভার্চুয়াল RAM ধারণাটি বোঝার জন্য, আমাদের প্রথমে বুঝতে হবে RAM কী?? কিভাবে কাজ করে?


Ram কী?

Ram এর পূর্ণরূপ হলো Random Access Memory (ram)। ram সাধারণত মাদারবোর্ড এর সঙ্গে সংযুক্ত থাকে,এটি অস্থায়ী memory।


Ram কিভাবে কাজ করে?

আমরা যখন মোবাইল বন্ধ বা Power অফ করি তখন র্যামের কাজ শেষ হয়, এবং এর মধ্যে থাকা সব ইনফরমেশন বা তথ্য মুছে যায়। একটা উদাহরণ দেই:-ধরূন আপনি মোবাইল কে কোনো নির্দেশ দিলেন, কোনো একটি গেম বা এপ্লিকেশন open করার জন্যে Touch করলেন, সেই নির্দেশ সিপিইউ (processor) এর কাছে যাবে এবং সিপিইউ সেই নির্দেশ Ram কে দিবে। এবার Ram সেই application বা game কে storage (ইন্টারনাল মেমরি/হার্ডডিস্ক) থেকে নিয়ে run করবে তারপর আপনার সেই গেম বা অ্যাপ্লিকেশন ওপেন হবে।(এ্যাপসের ডাটাগুলো স্টোরেজে স্টোর করা থাকে)

আপনি যখন কোনো app বা game মোবাইলে অথবা কম্পিউটারে ইনস্টল করেন তখন সেটি এ ইন্টারনাল মেমরি/হার্ডডিস্কে লোড হয় কিন্তু রান করে ram।


এখানে ram যদি বেশি থাকে তাহলে

বেশি এ্যাপস বা গেমস ওপেন করতে পারবেন,আর কম থাকলে ফোন slow হবে বা hang করবে।এবার নিশ্চয়ই মোবাইল বা পিসি কেন slow হয় বুঝতে পারছেন যাইহোক।

মূলকথা হচ্ছে সিপিইউ। সিপিইউকে কম্পিউটার/স্মার্টফোনের ব্রেইন বলা যায়। ram আপনার নির্দেশ মত কাজ করে,কিন্তু আপনি Direct র‍্যাম কে নির্দেশ দিতে পারবেন না,সিপিইউ‌ এর যখন র‍্যাম এর প্রয়োজন পরে তখন সে র‍্যাম কে নির্দেশ দেয়।আপনার স্মার্টফোনের RAM হল একটি অস্হায়ী মেমরি যা অন্য যেকোনো ধরনের স্টোরেজের চেয়ে দ্রুত। আপনি যখন ফোনে একটি অ্যাপ্লিকেশন open করবেন, তখন র্যাম কাজ করা শুরু করবে। RAM কোন দেরি বা বিলম্ব ছাড়াই দ্রুত অ্যাপ লোড করতে দেয়। যাইহোক।


Virtual RAM কী?

Virtual RAM আসলে ফোনের অভ্যন্তরীণ স্টোরেজকে(internal memory) অস্থায়ী RAM হিসেবে ব্যবহার করে 一 যা ভার্চুয়াল RAM নামে পরিচিত।

সহজ কথায়, ভার্চুয়াল RAM হল এমন একটি প্রযুক্তি যেখানে আপনার ফোনের অভ্যন্তরীণ স্টোরেজের(internal memory) একটি অংশকে অতিরিক্ত RAM হিসাবে ব্যবহার করা হবে যা কার্যকরভাবে আপনার স্মার্টফোনের মোট RAM এর পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়।

উদাহরণস্বরূপ, যদি একটি ফোনে 6GB RAM এবং 128GB স্টোরেজ থাকে এবং virtual ram যদি 5GB পর্যন্ত বাড়ান,, তাহলে আপনার কাছে এখন 11GB RAM এবং স্টোরেজ 5gb কমে গিয়ে 123GB থাকবে।


ভার্চুয়াল র‍্যাম কিভাবে কাজ করে?

এই ফিচারটি প্রায়ই পিসিতে (pc) ব্যবহৃত হয় এবং এটি আসলে পিসির একটা ফিচার যা পরবর্তীতে স্মার্টফোনের জন্যে নিয়ে আসা হয়। যদিও কয়েক বছর আগে থেকে রুট অ্যাক্সেসের মাধ্যমে(Root access) স্মার্টফোনেই virtual ram ব্যবহার করা যেত। কিন্তু এখন অফিসিয়ালি ফিচারটি স্মার্টফোনে থাকছে। এটি এখন অনেক বেশি সহজ।এখন আর আগের মতো ফোন রুট করতে হচ্ছে না। আপনি কত পরিমাণ virtual RAM বাড়াতে পারবেন তা ডিভাইসের উপর নির্ভর করে এবং আপাতত 1GB থেকে 7GB পর্যন্ত virtual RAM ব্যবহার করা যায়। Virtual RAM ব্যবহার করতে ফিচারটি অন করে ফোন Reboot/restart করতে হবে।


ভার্চুয়াল র‍্যাম কি সত্যিই কাজ করে?

ভার্চুয়াল RAM ব্যবহার করার সময় উক্ত সিস্টেমের দ্বারা স্টোরেজ থেকে ব্যবহৃত virtual RAM আর main র্যামের পারফরম্যান্সের কোন পরিবর্তন দেখতে পাবেন না, আপনার RAM পারফরম্যান্স আগের মত‌ই থাকবে। ভার্চুয়াল র‌্যাম কীভাবে কাজ করে তার ধারণা বোঝার জন্য আরেকটি উদাহরণ দেওয়া যাক।

মনে করুন... আপনার অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে 10টি অ্যাপ আছে এবং ফোনের 4 gb র‌্যামে আর কোনও জায়গা নেই, তাই android অ্যাপগুলোকে বন্ধ করে দিবে যেগুলি ব্যাকগ্রাউন্ডে চলছে না বা ব্যাকগ্রাউন্ডে run অবস্হায় নেই ।

এখানেই ভার্চুয়াল RAM কাজে আসে। ভার্চুয়াল র‌্যাম সেই সমস্ত অ্যাপ পরিচালনা করে যেগুলির ব্যাকগ্রাউন্ডে কোনও activity নেই এবং এই ধরনের অ্যাপগুলিকে দীর্ঘ সময়ের জন্য র্যামে রাখবে। অ্যান্ড্রয়েড সিস্টেম মেইনটেন্স(maintenances) করবে কোন অ্যাপগুলিকে ভার্চুয়াল মেমরিতে সংরক্ষণ করতে হবে এবং কোনটি করা উচিত নয়৷

ক্যালকুলেটরের মতো lite apps গুলো ভার্চুয়াল র‌্যামে run হবে৷।কম গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপগুলো ভার্চুয়াল র্যামে run করা হবে main ram ফাঁকা করার জন্যে, ভারী অ্যাপ যেমন: kinemaster, powerdirector, pubg, call of duty,,dead trigger, asphalt 8,, asphalt 9, freefire etc. অ্যাপ বা গেম গুলো main র্যামে run করবে। virtual RAM ভারী এপসগুলো রান করতে পারবে না। এটাও উল্লেখ করার মতো যে ভার্চুয়াল RAM আসলে গেমিং পারফরম্যান্সকে বাড়িয়ে তুলবে না।

কিন্তু র্যাম খালি রাখার জন্য জন্যে android system যে এপস গুলো killed বা close করে দেয়। সেগুলো virtual RAM এ run করবে।এতে সুবিধা হচ্ছে এপসগুলো অল্পসময়েই মধ্যে ওপেন করা যাবে।এটাই good side.

ভার্চুয়াল র‍্যাম, virtual ram, virtual ram android, virtual ram windows 10, virtual ram download, virtual ram xiaomi, virtual ram meaning, virtual ram samsung, virtual ram windows 7, virtual ram android no root, ভার্চুয়াল র্যাম

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন:

0 Comments

Please read our Comment Policy before commenting. ??

Please do not enter any spam link in the comment box.

আরকে রায়হান নোটিফিকেশন