business loans, commercial loan, auto insurance quotes, motorcycle lawyer

১৫০০ প্রবাদ বাক্য তালিকা | জনপ্রিয় বাংলা প্রবাদ প্রবচন

আপনি কি জানেন প্রবাদ বাক্য কি? আপনি কি প্রবাদ বাক্য তালিকা খুজতেছেন? যদি বাংলা প্রবাদ বাক্য খুজে থাকেন তাহলে স্বাগতম আমাদের আরকে রায়হান ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার জন্য। কারন আমরা প্রবাদ প্রবচন, বাংলা প্রবাদ বা প্রবাদ বাক্য সম্পর্কে ১০টি বাক্য, Probad Bakko Bangla নিয়ে হাজির হয়েছি।

আমরা আজকের পোস্টে ১০০০ হাজারেরও বেশি বাংলা প্রবাদ বাক্য তুলে ধরবো। এসব প্রবাদ বাক্য তালিকা গুলো থেকে আপনি নিজের মন মত করে পড়ে নিতে পারবেন। তো আমরা মুল পোস্টে যাওয়ার আগে জেনে নিবো প্রবাদ প্রবচন কি তারপরে গুরুত্বপূর্ণ ইংরেজি প্রবাদ বাক্য সম্পরকে জেনে নিবো।
১৫০০ প্রবাদ বাক্য তালিকা  জনপ্রিয় বাংলা প্রবাদ প্রবচন
১৫০০ প্রবাদ বাক্য তালিকা  জনপ্রিয় বাংলা প্রবাদ প্রবচন

প্রবাদ বাক্য কাকে বলে

বিশেষভাবে প্রচলিত কিছু শব্দগছেই প্রবাদ বা পন কবে কর নয় থেকে এর জন্য, তা কেউ জানে না, কিন ওই। একজনের জ্ঞানের স্ফুলিঙ্গ পৰত সৰু সৰুদ হয়ে উঠছে পদ হলে অভিজ্ঞতর বন থেকে আনা হেই সৰ ইৰৰ করাে। সেসৰ হীরার দান্তিতে দেশকে চেনা যায়, চেনা যায় দেশের মতাে বাংলা ভাষায় প্রচার প্রয়োজন রয়েছে। ইতিহাস, সমাজ, সাহিত্য সৰ বিষয়ের গবেষণাতেই প্রবচন অবশ্যপাঠ্য। 

প্রবাদ বাক্য চেনার উপায়

ভালাে প্রবাদের প্রথম লক্ষণ হলাে তা হৰে ছোট- মানিকের ঘনত্ত দ্বিতীয় লক্ষণ হলাে তার প্রকাশভঙ্গিটি হবে চমকপ্রদ, মাঝে ৰা শেষে মিল থাকলে তা শুনতেও ভালাে লাগে। ৩ নং লক্ষণ হলাে তা ঠুনকো হবে না, হবে সারবান। 

প্রবাদ বাক্যের উৎস 

আমাদের দেশে প্রবাদের বড় উৎস মেয়েরা, তারপর চাষি বা খেটে খাওয়া নানা বৃত্তির মানুষ কাশীরাম দাস, কৃত্তিবাসের কাব্য থেকে কালক্রমে অনেক প্রবাদ এসেছে, তেমনই কিছু কিছু এসেছে কবদের লেখা থেকে বিনে স্বদেশি ভাষা রে কি আশা’ বা ‘তুমি যে তিমিরে সেই তিমিরে’ | সবার উপরে মানুষ সত্য'- এস বানের মতোই। রামকৃষ্ণের হু কথাই প্রবাদে পরিণত হয়েছে, যেমন- যত মত তত পথ' বা যত দিন বছি তত দিন শিখি ইত্যাদি। সংস্কৃত থেকে সরাসরি বহু প্রবাদ বাংলায় এসেছে। যেমন- অধিকন্তু না দেয়, অচিন্তা চমৎকার', ‘যেনতেনপ্রকারেণ', 'ঋণং কৃত্বা ঘৃতং পিবেৎ’ ইত্যাদি। ইংরেজি থেকেও কিছু প্রবাদ বাংলায় এসেছে। যেমন- আঙুর ফল। টক ‘grapes are sour'- এরই অনুবাদ বলে মনে হয়। ডাক ও খনার বচনও প্রবচন। বাদল বাতাস বান, দক্ষিণা। পেলেই যান’, যদি বর্ষে মাঘের শেষ, ধন্য রাজার পণ্য দেশ’ ইত্যাদি।

প্রবাদ বাক্যের বিষয়

কিছু প্রবাদ কোনাে বিশেষ সত্যের দিকে আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। এগুলােকে উপলবিই বলা চলে। যেমন : যেমন কর্ম তেমন ফল’, ‘ধর্মের কল বাতাসে নড়ে', যতক্ষণ শ্বাস ততক্ষণ আশ’ ইত্যাদি। কিন্তু প্রবাদ আমাদের কোনাে বিশেষ মনােভাৰ ৰা অভ্যাস নিয়ে কটাক্ষ, যেমন : অন্ধকারে ঢিল ছোড়া', ভাঙে তব মকায় না', বামন গেল ঘর তাে লাঙল তুলে ধর’, ‘গাঁয়ে মানে না আপনি মােড়ল, মশা মারতে কামান দাগা ইত্যাদি। কোনাে কোনাে প্রবাদ আমাদের কর্তব্যের ইঙ্গিত দেয়, যেমন : কাজ করবি শক্ত, কাজের হবি ভক্ত, ঠ্যাং থাকতে কেন নিৰি লাঠি' ইত্যাদি। কতকগুলাে শুধ অভিজ্ঞতার ফল । যেমন : ‘গেঁয়াে যােগী ভিখ পায় না, অধিক সন্ন্যাসীতে গাজন নষ্ট', দশের লাঠি একের বােঝা' ইত্যাদি।

প্রবাদ বাক্যের অলংকারিতা

প্রবাদের বিশেষ একটি গুণ তার আলংকারিকতা। যখন বলি, গভীর জলের মাই, তখন মাইকে না বুঝিয়ে বিশেষ স্বভাব বা গুণের মানুষকে বােঝায়। যখন বলি বাঁশের চেয়ে কঞ্চি দড়', তখন বাঁশ বা কণ্ডিকে ছাড়িয়ে বড়াে আর ছােট অর্থে তা হয় সঞ্জরিত। অলংকার বিশ্লেষণ করলে তা হয়তাে রূপক বা অতিশয়ােক্তিতে দাঁড়াবে।

অ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন | প্রবাদ বাক্য তালিকা

  • আধক সন্ন্যাসীতে গাজন নষ্ট (প্রয়ােজনের অতিরিক লােক মিলে কোনাে কাজ করতে গেলে প্রায়ই বিশৃঙ্খলা ঘটে) তা সাহেবের মেয়ের বিয়ের আয়ােজন ছিল বেশ ভালাে, কিন্তু দশজনের দশ রকম পরামশ শুনে সবই গােলমাল করে ফেলেছেন। যাকে বলে অধিক সন্ন্যাসীতে গাজন নষ্ট। 
  • অকর্মা নাপিতের ধামা ভরা ক্ষুর (অযােগ্যতা ঢাকার জন্য বাড়তি আয়ােজন) : বাহ্যিক কোনাে আড়ম্বর দেখে কিংবা কোনাে চটক প্রচারে ভুলতে নেই। সব সময় মনে রাখতে হবে, অকর্মা নাপিতের ধামা ভরা ক্ষুর। 
  • অতি চালাকের গলায় দড়ি (চালাকি করে অপরকে ঠকিয়ে কার্যসিদ্ধি করতে গেলে নিজেকেই ঠকতে হয়) ওর মতাে কূটকৌশলী ব্যক্তিকে ঠকানাের চেষ্টা কর না, পরে বুঝবে অতি চালাকের গলায় দড়ি কাকে বলে। 
  • অতি লােভে তাঁতি নষ্ট (অধিক লােভে বেশি পেতে গেলে যা আছে তা-ও হারাতে হয়) : সম্পদ লাভের আশায় চাকরি ছেড়ে ঘাটের মরা চাচার বাড়িতে থেকো না; মনে রেখাে অতি লােভে তাঁতি নষ্ট। 
  • অতি ভক্তি চোরের লক্ষণ (ভক্তি, শ্রদ্ধা ইত্যাদির সীমা অতিক্রম করে যদি বেশি ভালাে মানুষী দেখাতে থাকে, তবেই সন্দেহ হয়) : ওর মিষ্টি মিষ্টি কথায় ভুলাে না; মনে রেখাে, অতি ভক্তি চোরের লক্ষণ। 
  • অভাগা যেদিকে চায় সাগর শুকিয়ে যায় (হতভাগ্য ব্যক্তির সবদিকে নিরাশা) : ধানের ব্যবসায় লােকসান হওয়ায় আমের ব্যবসার জন্য বাগান কিনলাম, প্রচণ্ড শিলাবৃষ্টিতে সবকিছু লণ্ডভণ্ড হয়ে গেল আসলে অভাগা যেদিকে চায় সাগর শুকিয়ে যায়। 
  • অল্প শােকে কাতর অধিক শােকে পাথর (বেশি দুঃখে স্তন্ধ হওয়া) : জীবিকার একমাত্র অবলম্বন দোকানটি পুড়ে যাওয়ায় জলিল সাহেব যেন নির্বাক হয়ে গেছেন- একেই বলে, অল্প শােকে কাতর অধিক শােকে পাথর। 
  • অভাবে স্বভাব নষ্ট (অভাবে পড়লে ভালাে মানুষও অসৎ হয়) ; হাসেম খানের মতাে একজন ভালাে মানুষ পরিবারের চাপে পড়ে ঘুষ খাওয়া শুরু করেছেন, একেই বলে অভাবে স্বভাব নষ্ট। 
  • অর্থই অনর্থের মূল (অর্থলােভ কুকর্মের সহায়ক) : টাকার কাছে বিষ্ণু সাহা বিক্রি হলেন-আসলে অর্থই অনর্থের মূল। 
  • অনভ্যাসের ফোঁটা/চন্দন কপাল চড়চড় করে (কখনাে কখনাে হঠাৎ করে আসা সুখ অসহ্য বােধ হয়) : চোধুরী সাহেব একটি। অসহায় মেয়েকে আশ্রয় দিয়ে তার যাবতীয় দায়িত্ব নিলেন, অথচ মেয়েটি একদিন অলংকার ও টাকা-পয়সা চুরি করে। পালিয়েছে। একেই বলে অনভ্যাসের ফোটা চন্দন/কপাল চড় চড় করে।

আ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন | প্রবাদ বাক্য তালিকা

  • আপন ভালাে তাে জগৎ ভালাে (নিজের মন ভালাে থাকলে জগতের সবাইকে ভালাে মনে হয়) : সবাই তে । খারাপ, তাহলে ভালাে কে? হয়তাে ভুলেই গেছ যে আপন ভালাে তাে জগৎ ভালাে। 
  • আপনি আচরি ধর্ম পরকে শেখাও (কোনাে নিয়ম নিজে মেনে অপরকে উপদেশ দেওয়া উচিত) : সমাজের কর্তারাতি আগে সমাজের নিয়ম মেনে চলতে হবে, তবেই সবাই তা মেনে চলবে, অর্থাৎ আপনি আচরি ধর্ম পরকে শেখাও। 
  • আসলে মূষল নেই, টেকি ঘরে চাঁদোয়া (উপযুক্ত ব্যবস্থা অবলম্বনের অভাব) : নিজেকে নিয়ে না ভেবে পরের জন্য ভারতে। আসলে মুষল নেই, উেঁকি ঘরে চাঁদোয়া।। 
  • আঙুর ফল টক (পান না তাই খান না) ; অনেক চেষ্টা করেও ঝরনা সরকারি চাকরিতে ঢুকতে পারেনি। তাই সে বলে। সরকারি চাকরিতে ঘুষ-বাণিজ্য হয়। একেই বলে আঙুর ফল টক। 
  • আপন ভালাে পাগলেও বােঝে (নির্বোধ হলেও নিজের ভালাে বুঝতে পারে) : আপন ভালাে পাগলেও বােঝে, রিমিকে দেখলে তা সহজে বােঝা যায়।
  • আমও গেল ছালাও গেল (লাভ করতে গিয়ে সবদিকে ক্ষতি হওয়া) : শেয়ারবাজারে টাকা বিনিয়ােগ করে হাবিবের অধিক লাভের আশা ছিল; কিন্তু হলাে উল্টো, শেয়ারবাজার ধসে তার আমও গেল ছালাও গেল। 
  • আগে দর্শনদারি পরে গুণবিচারি (মানুষ আগে চটক দেখে পরে গুণের বিচার করে) : আজকাল বিজ্ঞাপনের যুগে পণ্যদ্রব্যের গুণের চেয়ে মােড়কের চটকের ওপরই বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়। এজন্য বলা হয়ে থাকে, আগে দর্শনদারি পরে গুণবিচারি।। 
  • আগুন পােহাতে হলে ধোয়া সইতে হয় (সুখ লাভ করতে হলে কষ্ট সহ্য করতে হয়) : জীবনে সাফল্য লাভ করতে হলে নিরলসভাবে শ্রম দিতে হয়। কথায় বলে না, আগুন পােহাতে হলে ধোয়া সইতে হয় । 
  • আতি চোর পাতি চোর হতে হতে সিঁধেল চোর (ছােট ছােট অন্যায় কাজ করতে গিয়ে গুরুতর অপরাধ করতে শেখা) : ছেলের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিচার-বৈঠকে এখন খান সাহেবের কান কাটা যায়, কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা ছেলের এসব। কাজের কোনাে খোঁজ রাখেননি তিনি। ফলে ছেলেটি হয়েছে আতি চোর পাতি চোর, হতে হতে সিঁধেল চোর।।

ই দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • ইটটি মারলে পাটকেলটি খেতে হয় (অন্যের ক্ষতি করলে পাল্টা ক্ষতির আশঙ্কা থাকে) : চেয়ারম্যান খারাপ ব্যবহার করেছে, আমরাও চেয়ারম্যানের সাথে খারাপ ব্যবহার করব- কারণ ইটটি মারলে পাটকেলটি খেতে হয়। 
  • ইদুর চেনে না ভাগবত পুঁথি (সর্বস্ব অনিষ্টকারী) : তাহেরকে তুমি কোনাে কাজের দায়িত্ব দিও না, কারণ সে ক্ষতি করা। ছাড়া আর কিছুই বােঝে না। মনে রাখবে, ইদুর চেনে না ভাগবত পুঁথি। 
  • ইল্লত যায় না ধুলে, স্বভাব যায় না মলে (যার যা স্বভাব তা সে সহজে বদলাতে পারে না) : মানুষের ক্ষতি করে গ্রাম্য ।সালিশে সােহেলকে কয়েকবার কান ধরে উঠবস করতে হয়েছে, কিন্তু তারপরও তার চরিত্র বদলায়নি। এজন্য বলা হয়ে। | থাকে, ইল্লত যায় না ধুলে, স্বভাব যায় না মলে।।

উ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন | জনপ্রিয় প্রবাদ বাক্য

  • জাড় বনে শিয়াল রাজা (উপযুক্ত লােকের অভাবে অপদার্থের ক্ষমতা লাভ) : এলাকার রাস্তাঘাটের কোনাে উন্নতি নেই, কারণ উজাড় বনে শিয়াল রাজা। 
  • উলুবনে মুক্তা ছড়ানাে (যে ব্যক্তি বস্তুবিশেষের মূল্য বােঝে না, তার কাছে সেই বস্তুর উপস্থাপন ব্যর্থ হয়) ; সে গানের গা পর্যন্ত জানে না, ওকে তুমি গীতবিতান উপহার দিলে- এ যে উলুবনে মুক্তা ছড়ানাে। 
  • উড়াে খাই গােবিন্দায় নমঃ (নাগালের বহির্ভূত জিনিস দানে ব্যবহৃত) : অনাদায়ের পাওয়া টাকাটা করিম ব্যাপারীর ফান্ডে। দান করে উড়াে খাই গােবিন্দায় নমঃ'র ব্যবস্থা করা হয়।। 
  • উন বর্ষায় দুননা শীত (অল্প কাজে অধিক লাভ/ অল্প বর্ষায় বেশি শীত) : আয় বুঝে ব্যয় করতে হবে, উন বর্ষায় দুনাে শীত।। 
  • উনা ভাতে দুনা বল (অল্প আহারে শক্তি বৃদ্ধি) : কম করে খাও, বেশি খেলে বদহজম হবে, কারণ উনা ভাতে দুনা বল।

এ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন | প্রবাদ বাক্য তালিকা

  • ক কড়ার মুরােদ নাই, ভাত মারার গােসাই (নিজে আয় না করে অতিরিক্ত ব্যয় করা) : শাহেদ এমএ পাস করেও কোনাে দ্ধে যােগ না দিয়ে, মাঝে মাঝে বন্ধুদের নিয়ে এসে ঘরের অন্ন ধ্বংস করে। তাই তার বাবা রাগ করে বলেন, এক কড়ার মুরােদ নাই, ভাত মারার গােসাই।।
  • এক ঢিলে দুই পাখি মারা (একই কৌশলে দুই উদ্দেশ্য সাধন) :.এসেছ বেড়াতে, আবার ব্যবসার পথ তৈরি করছ- উদ্দেশ্য। দেখি এক ঢিলে দুই পাখি মারা। 
  • এক হাতে তালি বাজে না (দুই পক্ষ না হলে ঝগড়া হয় না) ; তােমরা দুজনই বলছ কেউ কিছুই করােনি, তাহলে এত বড়। ঝগড়াটা হলাে কী করে। একা একা কেউ ঝগড়া করতে পারে না ভুলে গেলে চলবে না যে, এক হাতে তালি বাজে না। 
  • এটোপাত না যায় স্বর্গে (পরমুখাপেক্ষীর সমৃদ্ধি সম্ভব হয় না) ; সুপারিশের মাধ্যমে চাকরি পেয়েছ, আবার পদোন্নতির জন্য। এত বাহানা- এটোপাত না যায় স্বর্গে।।

ও দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন | প্রবাদ বাক্য তালিকা

  • ওল বলে মানকচু তুমি বড় লাগাে (নিজের দোষ চাপা দিয়ে অন্যকে গালমন্দ করা) : মা ও মেয়ের স্বভাব এক হলেও সব সময় একে অপরকে দোষারােপ করে। এ যেন, ওল বলে মানকচু তুমি বড় লাগাে। 
  • ওঠ ছুঁড়ি তাের বিয়ে (আকস্মিকভাবে বড় বিষয় সম্পন্নের চেষ্টা) : ছেলে বিদেশে যাবে কোনাে পরিকল্পনা ছাড়াই ওঠ ছুঁড়ি। তাের বিয়ে বললে কি চলে?

ক দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন | প্রবাদ বাক্য তালিকা

  • কষ্ট না করলে কেষ্ট মেলে না (পরিশ্রম ছাড়া সাফল্য আশা করা যায় না) : জীবনে সফল হতে হলে নিরলস পরিশ্রম করতে হবে, কারণ কষ্ট না করলে কেষ্ট মেলে না।। 
  • কিলিয়ে কাঁঠাল পাকানাে (জোর করে কাজের উপযােগী করা) : দশ দিনে বিসিএস পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়া আর কিলিয়ে কাঠাল পাকানাের মধ্যে কোনাে পার্থক্য নেই।। 
  • কয়লা ধুলে ময়লা যায় না (অসৎ লােক সৎ উপদেশেও পরিবর্তিত হয় না) : জহিরের সম্পর্ক অসৎ সঙ্গের সাথে, তােমার কোনাে সদুপদেশই তাকে বদলাতে পারবে না। কথায় আছে না, কয়লা ধুলে ময়লা যায় না। 
  • কারও পৌষ মাস কারও সর্বনাশ (কারও সুসময় কারও দুঃসময়) : ঘূর্ণিঝড়ে ঘরবাড়ি, সহায়-সম্পদ হারিয়ে কেউ সর্বস্বান্ত। হয়েছে, আবার কেউ ত্রাণ বিতরণের নামে হয়েছে আঙুল ফুলে কলাগাছ। একেই বলে, কারও পৌষ মাস কারও সর্বনাশ। 
  • কাকের মাংস কাকে খায় না (স্বজাতির কেউ ক্ষতি করে না) : শরীফ ব্যাপারী আজিজ ব্যাপারীর বিরুদ্ধে কখনাে কথা বলবে। । এ কথা মনে রাখতে হবে যে, কাকের মাংস কাকে খায় না।
  • কানে দিয়েছি তাে আর পিঠে বেঁধেছি কলাে (বিশেষ সহ্যশক্তি ও ধৈর্য আয়ত্ত করা) : তােমরা আমায় যতই বকাঝকা কর । আমি কিছু শুনব না- কানে দিয়েছি তলাে আর পিঠে বেঁধেছি কুলাে। 
  • কাটা ঘায়ে নুনের ছিটা (কষ্টের ওপর অধিক কষ) : একে তাে চুরি করতে গিয়ে ধরা খেয়েছে, তার ওপর পুলিশের। ডাণ্ডাবেড়ি- বেচারার কাটা ঘায়ে যেন নুনের ছিটা পড়েছে। 
  • কত ধানে কত চাল (অভিজ্ঞতা দিয়ে জানা) ; আগে অভিভাবক হও তারপর বুঝতে পারবে কত ধানে কত চাল হয়। 
  • কথায় চিড়ে ভিজে না (ফাঁকা প্রতিশ্রুতি অর্থহীন) ; কাজ করতে হলে টাকার প্রয়ােজন, শুধু কথায় চিড়ে ভিজে না। 
  • কালি কলম মন লেখে তিনজন (মনােযােগ ছাড়া কোনাে কাজ হয় না) : কালি কলম মন লেখে তিনজন- এ কথা মেনে । রজনী লেখাপড়া করেছিল, তাই আজ সে বড় চাকরি পেয়েছে। 
  • কানা ছেলের নাম পদ্মলােচন (যার যে গুণ নেই, তাকে সেই গুণে অভিষিক্ত করা) : মাদক ব্যবসায়ীকে দিয়ে জনসেবা- এ যেন কানা ছেলের নাম পদ্মলােচন আর কি। 
  • কাঁটা দিয়ে কাঁটা তােলা (শত্রু দিয়ে শত্রু নাশ) : জাফর এমনিতে তােমার সাথে না পেরে তােমার সহকর্মীকে দিয়ে তােমার সর্বনাশ করল, একেই বলে কাঁটা দিয়ে কাঁটা তােলা। 
  • কেঁচো খুঁড়তে গিয়ে সাপ বেরিয়ে পড়া (সামান্য ঘটনা থেকে গুরুত্বপূর্ণ গােপন তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়া) : রফিক সাহেব বিষয়টি নিয়ে আর এগােবেন না, কারণ কেঁচো খুঁড়তে গিয়ে সাপ বেরিয়ে পড়তে পারে। 
  • যেথা যাও গােপাল, সঙ্গে যাবে কপাল (ভাগ্য চিরসঙ্গী) : চাষ ছেড়ে ব্যবসা শুরু করলাম, এখানেও দেখি আর উন্নতির নেই- কথায় বলে, যেথা যাও গােপাল, সঙ্গে যাবে কপাল। 
  • কাঁচায় না নােয়ালে বাঁশ পাকলে করে ঠাস ঠাস (ছােটকালে শিক্ষার সময়, বড় বয়সে সম্ভব নয়) : সময়মতাে তাকে শাসন। করােনি, এখন করলে কি হবে- কাঁচায় না নােয়ালে বাঁশ পাকলে করে ঠাস ঠাস।

খ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন | প্রবাদ বাক্য তালিকা

  • খাল কেটে কুমির আনা (শত্রুর আগমনের সুযােগ করে দেওয়া) : শত্রু-মিত্র বুঝে আশ্রয় দিও, না হলে তাে হবে খাল কেটে কুমির আনা। 
  • খালি কলসি বেশি বাজে (অন্তঃসারশূন্য) : পাঁচবার নির্বাচনে দাঁড়িয়েও মাসুদ সাহেবের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে, কিন্তু মুখের বড় বড় বুলি থামেনি। একেই বলে খালি কলসি বেশি বাজে। 
  • খুঁটির জোরে ভেড়া নাচে (শক্তিশালী ব্যক্তির পৃষ্ঠপােষকতায় অযােগ্য ব্যক্তিরও শক্তি দেখানাে সম্ভব) : আজিজ সাহেবের ভাই এলাকার নেতা, তাই সে অমন নেতাগিরি করতে পারে, কথায় বলে খুঁটির জোরে ভেড়া নাচে। 
  • খিদে পেলে বাঘে ঘাস খায় (প্রয়ােজনে নিচু কাজও করতে হয়) : ছেলেটা এমএ পাস করে প্রাইমারি স্কুলে চাকরি করছে। কী আর করা, খিদে পেলে বাঘে ঘাস খায়।

গ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • গাঁয়ে মানে না আপনি মােড়ল (গাঁয়ের কেউই যাকে মানে না, অথচ সে নিজে মােড়ল হতে চায়) : তােমাকে কেউ বিচারের। দায়িত্ব দেয়নি, একটু চুপ করে থাকো গাঁয়ে মানে না আপনি মােড়ল এসেছে। 
  • গরু মেরে জুতাে দান (বড়াে ধরনের ক্ষতি করে শেষে সামান্য কিছু দিয়ে পূরণ করা) : জহির আমার ল্যাপটপ ভেঙে ক্যালকুলেটর দিতে এসেছে, একেই বলে গরু মেরে জুতাে দান।। 
  • গাছে কাঁঠাল গোঁফে তেল (কোনাে কিছু লাভের আগেই খুশি হওয়া) : গাছে কাঁঠাল গোঁফে তেল লাগিয়ে সময় নষ্ট না করে চাকরির জন্য ভালােভাবে প্রস্তুতি নাও। 
  • গঙ্গা জলে গঙ্গা পুজো (যার জিনিস তাকেই দান করা) : রবীন্দ্রজয়ন্তীতে রবীন্দ্রনাথের কবিতা পড়ে গঙ্গা জলে গঙ্গা পুজো সারলাম আর কী।

ঘ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন | প্রবাদ বাক্য তালিকা

  • ঘটি ডােবে না নামে তালপুকুর (কিছু না থাকলেও অহংকার) : মৃধা বাবুর অর্থ না থাকলেও এখনাে অহংকারের অভাব নেই, ঘটি ডােবে না নামে তালপুকুর। 
  • ঘােমটার ভেতর খেমটা নাচ (লজ্জার ভাব দেখিয়ে নির্লজ্জ আচরণ) : নির্বাচিত নেতারা আদর্শের কথা ভুলে গিয়ে ঘােমটার নিচে খেমটা নাচ নাচতে শুরু করে। 
  • ঘরপােড়া গরু সিঁদুরে মেঘ দেখে ভয় পায় (বিগত বিপদের কথা স্মরণ করে অনুরূপ বিপদের ভয়ে কাতর) : একবার প্রতারণার শিকার হয়ে রামকৃষ্ণ ডেসটেনির কথা শুনতে পারে না, ঘরপােড়া গরু সিঁদুরে মেঘ দেখলে ভয় পায়।
  • ঘরের খেয়ে বনের মােষ তাড়ানাে (বিনা লাভে কোনাে কাজ করা) : মামুন তার গ্রামের একটি ছেলেকে দুবছর ধরে পড়ায়, কিন্তু তাকে কোনাে বেতন দেওয়া হয় না। একেই বলে ঘরের খেয়ে বনের মােষ তাড়ানাে। 
  • ঘঁটে পেপাড়ে গােবর হাসে (নিজের ভবিষ্যৎ দুর্দশার চিন্তা না করে অনেকে অন্যের বিপদে উল্লসিত হয়) : এ মাসে। অনিয়মের কারণে আমার মাইনে কাটা গিয়েছে বলে হাসছে অনেকে, কিন্তু ভাবছে না এমনটা তাদেরও হলাে বলে। মনে। রাখবে, খুঁটে পােড়ে গােবর হাসে। 
  • ঘরের শত্রু বিভীষণ (অভ্যন্তরীণ শত্রু) : রেজা তার মামির গহনা চুরি করে বেচে দিল। জানাে না ঘরের শত্রু বিভীষণ। 
  • ঘাড়ের ভূত নামাননা (দুর্বুদ্ধি ত্যাগ করা) : ইমাম সাহেবের ছেলে হয়ে নামাজ পড় না, ঘাড়ের ভূত নামিয়ে ফেল। 
  • ঘােড়া ডিঙিয়ে ঘাস খাওয়া (সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এড়িয়ে কাজ হাসিলের চেষ্টা) : শ্রেণিশিক্ষককে না জানিয়ে প্রধান শিক্ষকের কাছে নালিশ দিলে, ঘােড়া ডিঙিয়ে ঘাস খাওয়া ঠিক না।

চ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • চাচা আপন প্রাণ বাঁচা (প্রথম নিজের আত্মরক্ষার প্রয়ােজন শেষ করে পরে অন্যকে রক্ষার আয়ােজন করতে হয়) ; যে তুমুল। কাণ্ড বেঁধেছে, কোনাে রকমে পালিয়ে বাঁচলাম— চাচা আপন প্রাণ বাঁচা ছাড়া উপায় ছিল না। 
  • চাদেরও কলঙ্ক আছে (যােগ্য ব্যক্তিরাও ত্রুটিমুক্ত নন) : অনামিকার মুখে কাটা দাগের জন্য ওকে বিয়ে দেওয়া যাবে না এমনটি ভাবা ঠিক নয়- চাদেরও কলঙ্ক আছে। 
  • চালুনি বলে উঁচ তাের দেখি ছ্যাদা (দোষী হয়েও অপরের সামান্য ত্রুটির সমালােচনা করা) : কালাম নিজে দোষ করে। ছালামের বিচার করতে এসেছে- চালুনি বলে উঁচ তাের দেখি ছ্যাদা। 
  • চকচক করলেই সােনা হয় না (বাইরের রং আসল পরিচয় নয়) : সৌন্দর্য দেখে নয়, মেধা যাচাই করে ভর্তি করাে। কথায়। বলে, চকচক করলেই সােনা হয় না। 
  • চেনা বামুনের পৈতা লাগে না (পরিচিত ব্যক্তিকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার দরকার হয় না) : কবি শামসুর রাহমানের কথা বলছ তাে? তাঁকে এদেশের কে চেনে না চেনা বামুনের পৈতা লাগে না ।। 
  • চোরা শােনে না ধর্মের কাহিনি (অসৎ ব্যক্তি ভালাে উপদেশ গ্রহণ করে না) : নকল করা যাদের অভ্যাস কোনাে উপদেশই। তারা শােনে না চোরা শােনে না ধর্মের কাহিনি। 
  • চোর পালালে বুদ্ধি বাড়ে (বিপদের সময় বুদ্ধি লােপ পায়, বিপদ কেটে গেলে বিপদমুক্তির বিভিন্ন পন্থা মনে আসে) : সালিশের সময় এ কথাটা মনেই ছিল না, আর এখন মনে পড়ছে চোর পালালে বুদ্ধি বাড়ে।

ছ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • ছাই ফেলতে ভাঙা কুলাে (অনাদৃত হলেও তুচ্ছ কাজের অপরিহার্য সহায়) ; ঘরের আবর্জনা পরিষ্কার করার সময় কাউকে খুঁজে পাওয়া যায় না, অবশেষে বাড়ির বৃদ্ধ কর্তাকেই তা করতে হয়। এ যেন ছাই ফেলতে ভাঙা কুলাে। 
  • ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি (অবাঞ্ছিত ঝামেলা থেকে রেহাই পাওয়ার ব্যাকুলতা) ; চাচা চাকরির ব্যবস্থা করে দেবেন বলে। নিয়ে এলেন ঢাকায়, কিন্তু চাকরির খবর নেই, শুধু খাটিয়ে মারছেন। এখন আমার অবস্থা হচ্ছে ছেড়ে দে মা কেঁদে বাচি। 
  • ছুঁচো মেরে হাত গন্ধ (নগণ্য স্বার্থে দুর্নাম অর্জন) : সামান্য কয়টা টাকার জন্য এনায়েতের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে ছুঁচো মেরে হাত গন্ধ করা ঠিক হয়নি। 
  • ছােট মুখে বড় কথা (ছােটদের দ্বারা বা অযােগ্য লােক দ্বারা মানী লােকের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা) : ছােট মুখে বড় কথায় অনেক সময় বিপদ ডেকে আনে।

জ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • জলে কুমির ডাঙায় বাঘ (উভয় সংকট) : কাজটা করলে বড় সাহেব চটেন, আর না করলে চটেন বড় সাহেবের স্ত্রী। আমার এখন জলে কুমির ডাঙায় বাঘ অবস্থা।
  •  জুতা সেলাই থেকে চণ্ডীপাঠ (ছােট-বড় সব রকম কাজ) : চন্দনের বাবার কথা আর বলাে না, ও জুতা সেলাই থেকে চণ্ডীপাঠ পর্যন্ত সবই পারে।

ঝ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • ঝাল মরিচের লাল চামড়া (দুর্জনের আকৃতি সুন্দর হতে পারে) : আনিস খা সব সময় ভালাে মানুষটি সেজে থাকেন, কিন্তু ভিতরে ভিতরে উনি ধুরন্ধর মানুষ। কথায় বলে ঝাল মরিচের লাল চামড়া- উনি ঠিক তাই।। 
  • ঝিকে মেরে বউকে শেখানাে (নির্দোষকে শাস্তি দিয়ে দোষীকে সংশােধন করা) : তােমার অভিমানী ছেলেকে এভাবে বকাঝকা না করে ঝিকে মেরে বউকে শেখানাে নীতি অবলম্বন কর, দেখবে দুদিনে ঠিক হয়ে যাবে।। 
  • ঝােপ বুঝে কোপ মারা (অবস্থা বুঝে সুযােগ গ্রহণের চেষ্টা) : সরকারি চাকরির যে অবস্থা, ঝােপ বুঝে কোপ মারা ছাড়া। কোনাে উপায় নেই।

ট দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • টোটো কোম্পানির ম্যানেজার (কোনাে কাজ না করে বেকার বা ভবঘুরের মতাে থাকা) : কী আর করব? বিএ পা কোথাও কাজ না পেয়ে টোটো কোম্পানির ম্যানেজারি করছি।

ঠ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • ঠগ বাছতে গাঁ উজাড় (অসাধু লােকদের ছাঁটাই করতে গেলে কেউ আর অবশিষ্ট থাকে না) : যারা কাজে ঠান। তাদের ধরতে গিয়ে দেখা গেল, ফাঁকি দেয় না এমন কেউ নেই- ঠগ বাছতে গাঁ উজাড় । 
  • ঠেলার নাম বাবাজি (বাধ্য হয়ে নতিস্বীকার করা) : আগে সাহেব পাত্তা না দিলেও উপর থেকে নির্দেশ আসায় তিনি আমাকে চাকরিতে বহাল করলেন। একেই বলে, ঠেলার নাম বাবাজি।

ঢ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • ঢেকি স্বর্গে গেলেও ধান ভানে (কোনাে অবস্থায়ই অভ্যস্ত কাজ ছাড়া যায় না) : কী ভাই সেলিম, বেড়াতে এলে কক্সবাজার। এখানেও অফিসের খাতা তােমার সঙ্গে ঢেকি স্বর্গে গেলেও ধান ভানে।। 
  • ঢিলটি মারলে পাটকেলটি খেতে হয় (পরের অনিষ্ট করলে নিজেরও অনিষ্ট হয়) ; এখন আফসােস করছ কেন, জানােই। তাে ঢিলটি মারলে পাটকেলটি খেতে হয়।। 
  • ঢাল নেই তলােয়ার নেই নিধিরাম সরদার (ক্ষমতা নেই কিন্তু মিথ্যা আস্ফালন আছে) ; শরীরে বল নেই মারামারির মহড়া। করে- একেই বলে, ঢাল নেই তলােয়ার নেই নিধিরাম সরদার।

ত দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • তেলা মাথায় তেল দেওয়া (ধনীর খােশামােদ করা) : আমাদের সমাজে তেলা মাথায় তেল দেওয়া লােকের অভাব নেই। 
  • তেলে-বেগুনে জ্বলে ওঠা (অতিমাত্রায় রাগান্বিত হওয়া) : বড় জায়ের কথা ওঠামাত্র মিনা তেলে-বেগুনে জ্বলে ওঠে।

দ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • দুষ্ট গরুর চেয়ে শূন্য গােয়াল ভালাে (অবাঞ্ছিত ব্যক্তি থাকার চেয়ে না থাকাই ভালাে) : রহিম মিয়া পাঁচটি ছেলেকে। করে দিলেন, তার মতে দুষ্ট গরুর চেয়ে শূন্য গােয়াল ভালাে। 
  • দশের লাঠি একের বােঝা (দশজনের পক্ষে যা করা সহজ একজনের পক্ষে তা করা অসাধ্য) : বর্ষাকাল আসার অs গ্রামে সবাই মিলে বাঁধটি বেঁধে ফেল; জানােই তাে দশের লাঠি একের বােঝা। 
  • দুধের স্বাদ ঘােলে মেটানাে (ভালাের অভাব মন্দ দিয়ে পূরণ) : ছেলেটি মায়ের অভাব মাসিকে দিয়ে পূরণ করছে । বলে দুধের স্বাদ ঘােলে মেটানাে। 
  • দুধ-কলা দিয়ে কাল সাপ পােষা (অত্যন্ত আদর-যত্ন দিয়ে প্রাণঘাতী শত্রুকে লালন করা) : ও আমার শত্রর সাথে হাত। মিলিয়ে আমার ব্যবসা ধ্বংস করতে চলেছে, এত দিন আমি দুধ-কলা দিয়ে কাল সাপ পুষেছি।। 
  • দেশের ঠাকুর বিদেশের কুকুর (দেশের লােকের চেয়ে আপন আর কেউ হতে পারে না) : যে যােগ্যতা নিয়ে তুমি বিদেশে এসেছ, এখানে তার মূল্য কোথায় আসলে দেশের ঠাকুর বিদেশের কুকুর, এ কথা তাে সত্য। 
  • দাঁত থাকতে দাঁতের মর্যাদা না বােঝা (যথাসময়ে সুযােগের সদ্ব্যবহার না করা) : সময়ের কাজ সময়ে না করলে তার ফল | এভাবে পেতে হয় । তুমি তাে দাঁত থাকতে দাঁতের মর্যাদা বােঝ না।

ধ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • ধরি মাছ না ছুঁই পানি (কৌশলে কাজ আদায় করা) : রহিম মােল্লাকে তুমি চেনাে না, উনি খুবই ধড়িবাজ লােক; স্বার্থ। আদায়ে উনি ধরি মাছ না ছুঁই পানি। 
  • ধর্মের কল বাতাসে নড়ে (সত্যের প্রকাশ হবেই) : মহিমের খুনের রহস্য একদিন উদ্‌ঘাটিত হবেই। এ কথা সত্য যে ধর্মের কল বাতাসে নড়ে। 
  • ধান ভানতে শিবের গীত (অপ্রাসঙ্গিক কথার অবতারণা) ; জনগণ নেতার কাছে জানতে চেয়েছে রাস্তা উন্নয়নের কথা, আর তিনি বিগত বছরের ধারাবাহিক উন্নয়নের দিক তুলে ধরলেন। একেই বলে ধান ভানতে শিবের গীত।
  • ধরাকে সরা জ্ঞান করা (অহঙ্কারী হওয়া) : জীবনে সফল হতে চাইলে ধরাকে সরা জ্ঞান করা থেকে বিরত হও। 
  • ধারে না হলে ভারে কাটে (কোনাে না কোনােভাবে কার্যসিদ্ধি) : সংসারে হাল ধরে অত চিন্তা করছ কেন? ধারে না হলেও ভারে কেটে যাবে।

ন দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • নানা মুনির নানা মত (বিভিন্ন লােকের বিভিন্ন মত) : সমাজে কোনাে কাজ করতে গেলে নানা মুনির নানা মত আসবে। 
  • নুন খাই যার গুণ গাই তার (উপকারীর উপকার করা) : তিনি আমায় চাকরি দিয়েছেন, এ জন্য আমি তার সাথে আছি- নুন খাই যার গুণ গাই তার। 
  • ন্যাড়া বারবার বেল তলায় যায় না (ভুক্তভােগী কখনাে বারবার ঠকতে চায় না) : মিছিলে গিয়ে একবার গুলি খেয়েছিআরও যাব সেখানে! ন্যাড়া বারবার বেল তলায় যায় না। 
  • নাকের বদলে নরুন (যা প্রাপ্য তার চেয়ে অনেক কম পাওয়া) : বাবার মৃত্যুর পর মরিয়ম বাবার সম্পত্তির প্রাপ্ত অংশ দাবি করলে ভাইয়েরা তাকে যৎসামান্য টাকা দিয়ে বিদায় করে । যাকে বলে নাকের বদলে নরুন । 
  • নগর পুড়িলে দেবালয় কি এড়ায় : (কারও একার নয়, সবারই ক্ষতি হয় এমন অবস্থা) : তােমার ভাইয়ের শত্রুকে উস্কে দিও না। জেনে রেখাে, তােমারও বিরাট ক্ষতি হবে; কথায় বলে না, নগর পুড়িলে দেবালয় কি এড়ায়? 
  • নাই মামার চেয়ে কানা মামা ভালাে (একেবারে না থাকার চেয়ে সামান্য কিছু থাকা ভালাে) : বৃদ্ধ লােকটি দূর সম্পর্কের নাত জামাইয়ের বাড়িতে মাথা গোঁজার ঠাই পেল । ভালােই হলাে, কথায় বলে, নাই মামার চেয়ে কানা মামা ভালাে।। 
  • নিজের নাক কেটে পরের যাত্রাভঙ্গ (পরের ক্ষতির জন্য নিজের গুরুতর ক্ষতি করা) : মণ্ডল বাবুকে তুমি চিনতে ভুল করেছ। উনি নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গ করা মানুষ।

প দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • পুরান চাল ভাতে বাড়ে (বহুদশী বিজ্ঞ লােকের গণ অনেক) : শিমুলের বাবার কথা তােমরা অগ্রাহ্য করিও না, উনি ঠিক । বলেছেন, পুরান চাল ভাতে বাড়ে। 
  • পরের মাথায় কাঁঠাল ভাঙা (পরের ক্ষতি করে নিজে লাভবান হওয়া) : রথিন মণ্ডলের অভিসন্ধি বােঝা কঠিন, উনি সব! সময় পরের মাথায় কাঁঠাল ভাঙেন। 
  • পিড়েয় বসে পেডাের খবর (নগণ্য লােকের গুরুত্বপূর্ণ খবর রাখা) : সারা দিন নৌকা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করা লিয়াকত আবার রাজনীতিবিদদের কার্যকলাপ নিয়ে সমালােচনা করে- কথায় বলে পিড়েয় বসে পেড়াের খবর । 
  • পিপীলিকার পাখা গজায় মরিবার তরে (পতনের পূর্বে বেশি রকম বাড়াবাড়ি) : মামুন ও তার সহযােগীরা সাধারণ মানুষের ওপর যে অত্যাচার করেছে, তাদের পতন অনিবার্য। কথায় বলে পিপীলিকার পাখা গজায় মরিবার তরে। 
  • পাকা ধানে মই দেওয়া (প্রায় সমাপ্ত কাজ নষ্ট করা) : করিম সর্বদায় রনির পাকা ধানে মই দিতে ব্যতিব্যস্ত থাকে । 
  • পরের ধনে পােদ্দারি (অপরের অর্থ যথেচ্ছ ব্যয় করা) : মামার টাকায় বড়াই করা মানে পরের ধনে পােদ্দারি করা । 
  • পড়িয়া বিপাকে গণেশ মাঝি গরু রাখে (বিপদে পড়ে স্বভাববিরুদ্ধ কাজ করতে বাধ্য হওয়া) : বাংলায় অনার্স পড়বে, সুযােগ পেলে অর্থনীতিতে, কী আর করা, পড়িয়া বিপাকে গণেশ মাঝি গরু রাখে। 
  • পেটে খিদে চোখে লাজ (সংকোচবশত মনের ইচ্ছে প্রকাশ না করা) : পেটে খিদে চোখে লাজ দেখালে কারও সাহায্য পাওয়া যায় না।

ফ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • ফেল কড়ি মাখ তেল (অর্থের বিনিময়ে ইচ্ছে পূরণ) : চাকরি পেতে চাইলে ফেল কড়ি মাখ তেল দিলে ফল পাবে না, ভালাে। করে পড়াশােনা করাে। 
  • ফেন দিয়ে ভাত খায় গল্প মারে দই (মুখে আড়ম্বর) : পকেটে টাকা-পয়সা নেই অথচ ব্যাংক ব্যালেন্সের খবর দেখাচ্ছেএকেই বলে ফেন দিয়ে ভাত খায় গল্প মারে দই।

ব দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • ৰাড়া ভাতে ছাই দেওয়া (নিশ্চিত সাফল্য হাতছাড়া করা) : অতি সরলতায় সে আমার বাড়াভাতে ছাই দেওয়ার সুযােগ পেল। 
  • বারাে মাসে তেরাে পার্বণ (সর্বদা অনুষ্ঠানের ঘটা); বাংলার সংস্কৃতিতে জড়িয়ে আছে হাজারাে উৎসৰ। তাই বাতি, বারাে মাসে তেরাে পার্বণ পালন করে। 
  • বাঘে-গরুতে এক ঘাটে পানি খায় (যােগ্য শাসনে বাদী-বিবাদী উভয়ে ভাত) : সরকারের কঠোর শাসনে বাঘে গরতে । ঘাটে পানি খেতে শুরু করেছে। 
  • বাঘের ঘরে যােগের বাসা (শত্রর ঘরে গােপনে অবস্থান) : জমিদারের আশ্রয়ে থাকা চোরকে ধরবে কী করে? এ যে বা ঘরে ঘােগের বাসা।। 
  • বরের ঘরের পিসি কনের ঘরের মাসি (উভয় পক্ষের স্বার্থ জড়িত) : ঘােষাল বাবুকে ধরলে এ কাজের কোনাে ফল আসবে। কারণ উনি বরের ঘরের পিসি কনের ঘরের মাসি।। 
  • বানরের গলায় মুক্তার মালা (অযােগ্যের হাতে উৎকৃষ্ট বস্তুর দুর্দশা) : শফির মতাে নেশাখাের ছেলেটির সাথে গ্রামের শিক্ষিত ও সুন্দরী মেয়েটির বিয়ে হলাে- এখন তার অশান্তি, একেই বলে বানরের গলায় মুক্তার মালা। 
  • বজ্র আঁটুনি ফসকা গেরাে (বাইরে শক্তিমান ভেতরে দুর্বল) : লিখনের কথা বিশ্বাস করাে না। ওকে দিয়ে কোনাে কাজ হবে না। ও আসলে বজ্র আঁটুনি ফসকা গেরাে। 
  • বিড়ালের গলায় ঘন্টা বাধা (বিপজ্জনক কাজ করা) : কুখ্যাত সন্ত্রাসী বিনয়কে ধরা মানে বিড়ালের গলায় ঘন্টা বাধা ।। 
  • বারাে হাত কাঁকুড়ের তেরাে হাত বিচি (মূল বিষয় অপেক্ষা অপ্রয়ােজনীয় বিষয়ের বাড়াবাড়ি) : তুমি যে উত্তরটা লিখেছ তা। দেখে মনে হচ্ছে বারাে হাত কাঁকুড়ের তেরাে হাত বিচি। 
  • বিষ নেই তার আবার কুলােপানা চক্কর (ক্ষমতাহীনদের অহেতুক আস্ফালন) : সাবেক মেম্বার তুমি, তােমার চোখ রাঙানিতে আমি ডরাই না। বিষ নেই তার আবার কুলােপনা চক্কর।। 
  • বাঘে ছুঁলে আঠার ঘা (দুষ্ট লােকের পাল্লায় পড়লে কিছু না কিছু ক্ষতি হবেই) : গােবিন্দের মতাে দুষ্ট লােকের সাথে তােমার মাখামাখি, জানাে না বাঘে ছলে আঠার ঘা। 
  • বাপকা বেটা সেপাইকা ঘােড়া (পৈতৃক বা পারিবারিক বৈশিষ্ট্যের প্রকাশ) : অভিনেতার ছেলে অভিনয় করে, একেই বলে বাপকা বেটা সেপাইকা ঘােড়া।। 
  • বচনে জগৎ তুষ্ট (মিষ্টি কথা বললে সবাই সন্তুষ্ট থাকে) : অফিসের বড় সাহেব খুব গুরুগম্ভীর লােক, তাকে কেউ সন্তুষ্ট। করতে পারে না। তিনি শধ রহিমের কথায় সন্তুষ্ট হয়- একেই বলে বচনে জগৎ তুষ্ট। 
  • বেল পাকলে কাকের কী (আয়বহির্ভূত জিনিসের আকর্ষণ না হওয়া) : জমিদার বাবুর মেয়ের বিয়ে। তাতে গরিবের কী। আসে-যায়- বেল পাকলে কাকের কী? 
  • বুকের মাঝে টেকির পার (অন্তর্বেদনা) : চাকরি হওয়ার কথা শুনে বুকের মাঝে টেকির পার বন্ধ হলাে ।। 
  • বিয়ে করতে কড়ি ঘর বাঁধতে দড়ি (প্রয়ােজনীয় কাজে যথাযথ খরচ) ; অল্প পয়সা দিয়ে অধিক কাজ হয় না, এ কথা জানে। , বিয়ে করতে কড়ি ঘর বাঁধতে দড়ি।।

ভ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • ভাজা মাছটি উন্টে খেতে জানে না (অতিরিক্ত সরলতার ভান করা) : আজকে যে পরীক্ষা হবে না এ বিষয়ে তমি সন জানতে, এমন ভাব করছ যে ভাজা মাছটি উল্টে খেতে জানাে না। 
  • ভাঙা কপাল জোড়া লাগে না (সৌভাগ্য নষ্ট হলে ফিরে আসে না) : জহির জুয়া খেলে সহায়-সম্পদ সব হারিয়েছে। এরপর শত চেষ্টা করেও তা আর ফিরে পায়নি। মনে রাখতে হবে, ভাঙা কপাল জোড়া লাগা সহজ কথা নয়।। 
  • ভীমরুলের চাকে খোঁচা দেওয়া (ভিন্ন মতাবলম্বীকে উত্তেজিত করা) : ভীমরুলের চাকে খোঁচা দিয়ে বশীর আহমেদ নিজেই। নিজের বিপদ ডেকে এনেছে। 
  • ভিক্ষার চাল কাঁড়া আর আকাঁড়া (যে জিনিস অপরে দেয় তাতে দোষত্রুটি থাকলেও কিছু আসে-যায় না) : বীথির মা ঈদের সময় চেয়ারম্যানের কাছ থেকে পেয়েছে দানের কাপড়। দানের কাপড় নিয়ে আবার কত সমালােচনা, ভিক্ষার চাল কাড়া আর আকাড়া। 
  • ভাত ছড়ালে কাকের অভাব হয় না (অর্থ ব্যয় করলে কাজের লােকের আগমন ঘটে) : চিন্তা করাে না, টাকা যখন আছে। ডাকলে অনেক লােক পাবে, ভাত ছড়ালে কাকের অভাব হয় না।

ম দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • মায়ের কাছে মামাবাড়ির গল্প (কোনাে ব্যাপারে অভিজ্ঞ লােককে সে ব্যাপারে জানানাের চেষ্টা) : বরিশালে আমি দশ বছর। ছিলাম, সেখানকার পরিবেশের কথা আমাকে শুনিও না- মায়ের কাছে মামার বাড়ি গল্প কোরাে না। 
  • মেঘে মেঘে বেলা হওয়া (বয়স বেড়ে যাওয়া) : মেঘে মেঘে বেলা তাে অনেক হলাে, সংসারের দায়িত্বটা এখন বড় ছেলের হাতে দিন না রফিক সাহেব?
  • মাথা নেই তার আবার মাথাব্যথা (অযথা দুশ্চিন্তা করা) : নির্বাচনের প্রার্থী নও তুমি, পাস-ফেল নিয়ে তােমার এত চিন্তা কিসের? মাথা নেই তার আবার মাথাব্যথা। 
  • মশা মারতে কামান দাগা (সামান্য ব্যাপারে বিরাট আয়ােজন) : সিঁধেল চোরকে শাস্তি দিতে গ্রামের সব মানুষ এক হয়েছে- এ যেন মশা মারতে কামান দাগা অবস্থা। 
  • মড়ার ওপর খাড়ার ঘা (মর্মান্তিক আঘাতের ওপর আঘাত) : অভাব-অনটনের সংসারে লিটন মিয়ার চাকরিজীবী ছেলের মৃত্য সংবাদে যেন মড়ার ওপর খাড়ার ঘা। 
  • মােল্লার দৌড় মসজিদ পর্যন্ত (ক্ষমতার বাইরে কেউ কিছু করতে পারে না) : গ্রামে জাফর সাহেবের যত দাপট, বাইরে তাকে কেউ চেনে না। তাই বলি মােল্লার দৌড় মসজিদ পর্যন্ত। 
  • মহাভারত অশুদ্ধ হওয়া (বড় ধরনের ত্রুটি) : গরিব হয়ে জন্মালেই যে মহাভারত অশুদ্ধ হয়ে যাবে তা নয়, প্রতিষ্ঠিত হওয়ার প্রধান হাতিয়ার শিক্ষা। 
  • মাছের মায়ের পুত্রশােক (গুরুতর অপরাধীর মায়াকান্না) : মানব পাচারকারীরা দেশের জনশক্তি নিয়ে হা-হুতাশ করে- যা মাছের মায়ের পুত্রশােকের শামিল। 
  • মারে আল্লাহ রাখে কে রাখে আল্লাহ মারে কে (বিধি প্রসন্ন হলে বিপদ এড়ানাে যায়) : বিল্ডিং ধসে সবাই মারা গেল; আমিই শুধু বেঁচে গেলাম, রাখে আল্লাহ মারে কে?

য দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • যে যায় লঙ্কায় সে-ই হয় রাবণ (ক্ষমতায় গেলে সবাই ক্ষমতার অপব্যবহার করে) : আম্পায়ার পরিবর্তন করে আমাদের কনে লাভ নেই, কারণ যে যায় লঙ্কায় সে-ই হয় রাবণ।।
  • যে সহে যে রহে (সহনশীল লােক শেষ পর্যন্ত সফল হয় বা বিপদে ধৈর্যধারণ বিফলে যায় না) : অল্প বিপদে ভেঙে পড়লে। দেবে না, মনে রাখতে হবে, যে সহে যে রহে। 
  • যারে দেখতে নারী তার চলন বাঁকা (অপছন্দের সবকিছু খারাপ) : বাবা-মা মরা ছেলেটার মামির কাছে সবকিছুই দোষের, এ যেন যারে দেখতে নারী তার চলন বাঁকা। 
  • যেমন কুকুর তেমন মুগুর (যে যেমন স্বভাবের, তার তেমন শাস্তি) : ছিনতাই করতে গিয়ে ছিনতাইকারী গণপিটুনি খেয়েছে, যেমন কুকুর তেমন মুগুর।। 
  • যেমন বুনাে ওল, তেমনি বাঘা তেঁতুল (সেয়ানে সেয়ানে মুখােমুখি) : ভাবি যেমন ধড়িবাজ, ননদও তেমন— যেমন বুনাে ওল, তেমনি বাঘা তেঁতুল। 
  • যত হাসি তত কান্না বলে গেছেন রামশন্না/ রামশর্মা (অতি সুখে আহ্লাদিত হলে দুঃখে পড়তে হয়) : এত উল্লসিত হয়াে না, কারণ জানাে তাে যত হাসি তত কান্না বলে গেছেন রামশন্না/ রামশর্মা। 
  • যথা ধর্ম তথা জয় (ন্যায়ের পথেই সাফল্য আসে) : কপথে যেও না, কারণ যথা ধর্ম তথা জয় । 
  • যার বিয়ে তার হুঁশ নেই, পাড়াপড়শির ঘুম নেই (যার কাজ তার বদলে অন্যের ব্যস্ততা) : নতুন বাড়ি করবে তুমি আর ছােটাছুটি করব আমি? যার বিয়ে তার হুঁশ নেই- পাড়াপড়শির ঘুম নেই। 
  • যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে নানা ধরনের কাজ নিয়েই জীবন) : শুধু অভিনয় নিয়ে পড়ে থাকলে হবে? পড়াশােনাও করতে হবে, যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে।

র দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • রথ দেখা ও কলা বেচা (একসঙ্গে একাধিক উদ্দেশ্য সম্পন্ন করা) : জহির সাহেব অসুস্থ, যাই পাওনা টাকাটা দিয়ে আসি। আর দেখেও আসি- রথ দেখা ও কলা বেচা হবে একসঙ্গে । 

  • রাজায় রাজায় যুদ্ধ হয়, উলু খাগড়ার প্রাণ যায় (ক্ষমতাধরদের দ্বন্দ্বের কারণে সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত) : সামাজিক | প্রতিহিংসার দ্বন্দ্বে প্রাণ গেল বহু মানুষের এ যেন রাজায় রাজায় যুদ্ধ হয়, উলু খাগড়ার প্রাণ যায় অবস্থা।

ল দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • লাল ঘরের ভাত খাওয়া (জেলে অবস্থান) : খুনের আসামিকে লাল ঘরের ভাত খেতেই হয়। 
  • লঘু পাপে গুরুদণ্ড (অপরাধের তুলনায় অধিক সাজা) : লাইসেন্স ছাড়া মটরবাইক চালানাের কারণে সার্জেন্ট রমিজকে তিন মাস কারাদণ্ড দিল । একেই বলে লঘু পাপে গুরুদণ্ড। 
  • লাগে টাকা দেবে গৌরীসেন (প্রয়ােজনীয় অর্থ জোগানের উৎস) : টাকার কথা চিন্তা করতে হবে না, তাস খেলার সময় লাগে টাকা দেবে গৌরীসেন— খেলে যাও। । 
  • লেৰ বেশি কচলালে তেতাে হয় (মাত্রারিক্ত বাড়াবাড়িতে শান্তি নষ্ট হয়) : একের পর এক দায়িত্ব একজনের ওপর চাপিও না, জানােই তাে লেবু বেশি কচলালে তেতাে হয়।

শ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন

  • শাক দিয়ে মাছ ঢাকা (অপরাধ ঢাকার ব্যর্থ চেষ্টা করা) : নির্বাচনের আগে জনহিতকর কথা নেতাদের মুখে মানায় । কারণ তাদের স্বভাবই শাক দিয়ে মাছ ঢাকা।। 
  • শিব গড়তে বাঁদর (ভালাে কাজ করতে গিয়ে মন্দ ফল লাভ) : তােমার আগ বাড়িয়ে কিছু না করাই ভালাে কান জানে তুমি শিব গড়তে বাঁদর করে ফেলবে। 
  • শরে ভক্ত নরমের যম (শক্তিমানকে ভয় করা ও দুর্বলকে ভয় দেখানাে) ; রাজুকে নিরীহ পেয়ে তেড়ে এসেছিলে । রাজনকে দেখে পিছু হটছ । তােমার অবস্থা হচ্ছে- শক্তের ভক্ত নরমের যম। 
  • শ্যাম রাখি না কুল রাখি (দোটানায় পড়া) : একই সময়ে একজনের বিয়ে আর অন্যজনের জন্মদিনের দাওয়াত খাওয়া নিয়ে মহাবিপদে পড়েছি, শ্যাম রাখি না কুল রাখি।।

স দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন | Probad Bakko Bangla

  • সময়ের এক ফোঁড়, অসময়ের দশ ফোঁড় (সময়ে সাবধান হলে বিপদকালে রেহাই মেলে) : টাকা-পয়সা জমা রাখা ভালাে, বিপদ-আপদে তা কাজে লাগবে। বলা তাে যায় না সময়ের এক ফোড় অসময়ের দশ ফোড়। 
  • সবুরে মেওয়া ফলে (ধৈর্য ধরলে ভালাে ফল পাওয়া যায়) : কাজ হাসিলের জন্য অধৈর্য হলে চলবে না, সবুরে মেওয়া ফলে। 
  • সােনার কাঠি রুপাের কাঠি (মরা-বাঁচার উপায়) : চাকরিটা লিংকনের জীবনের একমাত্র সােনার কাঠি রুপাের কাঠি। 
  • সাপও মরে লাঠিও না ভাঙে (নিজের ক্ষতি না করে বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে কার্যসিদ্ধি) : চেয়ারম্যান নিজের ছেলের বিচারটা এমনভাবে করল, যাতে সাপও মরে লাঠিও না ভাঙে। 
  • সস্তার তিন অবস্থা (কম দামের জিনিসে নানারকম খুঁত থাকে) : এক ধােয়াতেই তার নতুন শার্টের রং ফিকে হয়ে গেছে, একেই বলে সস্তার তিন অবস্থা। 
  • সাতেও না পাঁচেও না (নিরাসক্ত থাকা) : মেলায় যাওয়ার ব্যাপারে আমি কারও সাতেও না পাঁচেও না।। 
  • সেই রামও নেই সেই অযযাদ্ধাও নেই (যুগের অবসানে বা সুখপ্রদ ঘটনার পরে স্মৃতিচারণ) : ঢাকা শহরে যানজট, ছিনতাই বেড়েই চলেছে, এখানে সেই রামও নেই সেই অযােদ্ধাও নেই।

হ দিয়ে বাংলা প্রবাদ বাক্য | বাংলা প্রবাদ প্রবচন | Probad Bakko Bangla

  • হাটে হাঁড়ি ভাঙা (গােপন বিষয় প্রকাশ্যে ফাঁস করে দেওয়া) : আমাকে বেশি রাগিও না, আমি কিন্তু হাটে হাড়ি ভেঙে দেন। 
  • হাতেরও খাবে পাতেরও খাবে (সব সযােগ ভােগের চেষ্টা) : কোনাে কাজ করে না অথচ উনি হাতেরও খাৰে পাতেরও খাবে 
  • হাতে না মেরে ভাতে মারা (বড় ধরনের ক্ষতি করা) : তুমি আমার সাথে বেঈমানি করলে, সুযােগ পেলে আমি তােমাকে হাতে না মেরে ভাতে মারব। 
  • হাতের লক্ষ্মী পায়ে ঠেলা (হেলায় সুযােগ নষ্ট করা) : তনুশ্রী ভালাে চাকরি পেয়েও ছেড়ে দিল; হাতের লক্ষ্মী তার পায়ে ঠেলা উচিত হয়নি। 
  • হাতি ঘােড়া গেল তল, ভেড়া বলে কত জল (ক্ষমতাবান লােক যা পারে না, সামান্য লােকের তা নিয়ে স্পর্ধা করা) ; আমির সাহেব অঙ্কটা পারেনি, তার ছেলে হয়ে তুমি বােঝাতে এসেছ- একেই বলে হাতি ঘােড়া গেল তল, ভেড়া বলে কত জল । 
  • হাকিম নড়ে তাে হুকুম নড়ে না (বিচারকের রায়ই চুড়ান্ত) : আমাদের বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের কথাই মানতে হবে। এখানে হাকিম নড়ে তাে হুকুম নড়ে না।। 
  • হবুচন্দ্র রাজার গবুচন্দ্র মন্ত্রী (মূর্খ বা অযােগ্যের মূর্খ বা অযােগ্য সাক্ষী) ; একজন চোর অন্যজন ডাকাত। এখন দুজনই। এসেছে বন্ধুত্ব করতে, এ তাে দেখছি হবুচন্দ্র রাজার গবুচন্দ্র মন্ত্রী।

আর্টিকেলের শেষকথাঃ ১৫০০ প্রবাদ বাক্য তালিকা | জনপ্রিয় বাংলা প্রবাদ প্রবচন
বন্ধুরা আমরা এতক্ষন জানলাম প্রবাদ বাক্য তালিকা, বাংলা প্রবাদ বাক্য, প্রবাদ প্রবচন, ইংরেজি প্রবাদ বাক্য, প্রবাদ বাক্য সম্পর্কে ১০টি বাক্য, ইংরেজি প্রবাদ বাক্য বাংলা অর্থসহ, জনপ্রিয় প্রবাদ বাক্য, গুরুত্বপূর্ণ ইংরেজি প্রবাদ বাক্য। যদি আপনাদের আজকের এই ১৫০০ প্রবাদ বাক্য তালিকা | জনপ্রিয় বাংলা প্রবাদ প্রবচন পোস্ট টি ভালো লাগে তাহলে এখনি বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিন আর এই রকম নিত্য নতুন পোস্ট পেতে আমাদের আরকে রায়হান ওয়েবসাইট টি ভিজিট করুন নিয়মিত।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url