লেখালেখি করে মাসে ৬ হাজার টাকা ইনকাম

ফেসবুকে লিংক শেয়ার করে ১০০০ টাকা আয়

সালাতুল তাসবিহ নামাজের নিয়ম ও ফজিলত | salatut tasbih namajer niyot

আসসালামু আলাইকুম। আজকে আমরা জানবো সালাতুত তাসবিহ নামাজ পড়ার নিয়ম ( salatut tasbih namajer niyom ), সালাতুল তাসবিহ নামাজের নিয়ত ও সালাতুত তাসবিহ নামাজের ফজিলত এবং সালাতুত তাসবিহ নামাজ পড়ার নিয়ম।

সালাতুত তাসবিহ নামাজ পড়ার নিয়ম, সালাতুল তাসবিহ নামাজের নিয়ত ও সালাতুত তাসবিহ নামাজের ফজিলত, salatut tasbih namajer niyom, salatut tasbeeh, salatut tasbih porar niyom, salatut tasbih namajer niyot, salatut tasbih bangla

যারা সালাতুত তাসবিহ নামাজ সম্পর্কে জানেন না তারাও সালাতুল তাসবিহ নামাজ সম্পর্কে জানতে পারবেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক সালাতুত তাসবিহ নামাজ পড়ার নিয়ম, সালাতুল তাসবিহ নামাজের নিয়ত ও সালাতুত তাসবিহ নামাজের ফজিলত এবং সালাতুত তাসবিহ নামাজ পড়ার নিয়ম।

সুচিপত্রঃ সালাতুত তাসবিহ নামাজের ফজিলত | সালাতুল তাসবিহ নামাজের নিয়ত | সালাতুত তাসবিহ নামাজ পড়ার নিয়ম

সালাতুল তাসবিহ নামাজ

চারি রাকয়াত-বিশিষ্ট এই নামাযের প্রতি রাকয়াতে ৭৫ বার করিয়া সর্বমােট ৩০০ বার তাসবীহ পড়িতে হয়, এইজন্য ইহার নাম হইয়াছে ‘ছালাতুত্ তাসবীহ বা তাসবীহের নামায।  নামাযের নিষিদ্ধ সময় ব্যতীত দিবারাত্রির জন্য যে-কোন সময়ে এই নামায়। পড়া যায়।

সালাতুত তাসবিহ নামাজের ফজিলত

এই নামাযের ফজিলত অসীম। একদা হযরত নবী করীম (সাঃ) তাঁহার চাচা হযরত আব্বাস (রাঃ)-কে বলিলেন। “চাচাজান! আমি কি আপনাকে এমন একটি কাজের সন্ধান বালিয়া দিব না যাহা পালন করিলে আল্লাহ্ তায়ালা আপনার পূর্বের এবং পরের, নূতন এবং পুরাতন, ইচ্ছাকৃত এবং অনিচ্ছাকৃত, প্রকাশ্য এবং গােপনীয়, ছগীরা এবং কবীরা সমস্ত গুনাহ মাফ করিয়া দিবেন ? আর সেই কাজটি হইল এই যে, আপনি ৪ রাকয়াত নামায পড়িবেন এবং প্রত্যেক রাকয়াতে সূরা। ফাতেহার পর অন্য যেকোন একটি সূরা পড়িয়া দাঁড়ান অবস্থায়ই।

سبحان الله والحمد لله ولا اله الا الله والله اكبر

ছুবহানাল্লাহি ওয়ালহামদুলিল্লাহি ওয়ালা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আবার এই তাসবীহটি ১৫ বার পড়িবেন। তাহার পর রুকুতে যাইবেন এবং রুকুতে থাকিয়া এই তাসবীহ্ ১০বার পড়িবেন। তাহার পর রুকু হইতে দাঁড়াইয়া আবার এই তাসবীহ ১০বার পড়িবেন। তাহার পর সেজদায় যাইবেন এবং প্রত্যেক সেজদার অবস্থায় উহা দশ দশবার পড়িবেন। তাহার পর প্রত্যেক সেজদা হইতে মাথা উঠাইয়া বসা অবস্থায় আরও দশ দশবার পড়িবেন। এইভাবে প্রতি রাকয়াতে এই তাসবীহ ৭৫ বার পড়া হইবে। সম্ভব হইলে প্রতিদিন একবার এই নামায পড়িবেন। | যদি তাহা না পারেন তবে প্রত্যেক জুমার দিনে একবার পড়িবেন। তাহা না পারিলে মাসে একবার পড়িবেন। তাহাও যদি না পারেন, তবে বছরে একবার পড়িবেন। ইহাও যদি সম্ভব না হয় তবে সারাজীবনের মধ্যে একবার পড়িবেন।” (তিরমিজী ; ইবনে মাজা)।

সালাতুল তাসবিহ নামাজের নিয়ত

“নাওয়াইতু আন্ উছাল্লিয়া লিল্লাহি তায়ালা আরবায়া' রাকয়াতি ছালাতিত তাসবীহ ; মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল কা'বাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।"

বাংলা নিয়তঃ আমি কেবলামুখী হইয়া আল্লাহর ওয়াস্তে চারি রাকয়াত ছালাতুত তাসবীহ পড়িবার নিয়ত করিলাম।

সালাতুত তাসবিহ নামাজ পড়ার নিয়ম

এই নামায একসঙ্গে চারি রাকয়াত পড়িতে হয়। একনজরে উক্ত তাছবীহের সংখ্যা:

যে কোন সূরা দ্বারা এ নামায পড়া যায় । সূরা-কেরাতের পর দাড়ানাে অবস্থায় ১৫ বার, রুকুর অবস্থায় থাকিয়া ১০ বার, রুকু হইতে দাঁড়াইয়া ১০ বার, প্রথম সেজদায় থাকিয়া ১০ বার, প্রথম সেজদা হইতে বসিয়া ১০ বার, দ্বিতীয় সেজদায় থাকিয়া ১০ বার, দ্বিতীয় সেজদা হইতে বসিয়া ১০ বার মােট ৭৫ বার।

উল্লেখ্য যে দ্বিতীয় সেজদা হইতে বসিয়া ১০বার তাসবীহ পড়ার পর ২য় রাকাআতের জন্য দাড়াইবে।

উপরােক্ত নিয়মে এক রাকয়াত পড়া হইলে তাহার পর দ্বিতীয় রাকয়াতের জন্য দাঁড়াইবে এবং যথারীতি সূরা-কেরাত পড়িয়া তাহার পর উক্ত নিয়মে আবার ৭৫ বার এই তাসবীহ পড়িবে । দ্বিতীয় রাকয়াতের পর বৈঠক করিয়া এবং আত্তাহিয়্যাত পড়ার পর তৃতীয় রাকয়াতের জন্য দাঁড়াইবে এবং প্রথম দুই রাকয়াতের মত আরও দুই রাকয়াত নামায পড়িবে । এইভাবে চারি রাকআতে মােট ৩০০ বার তাসবীহ পড়া হইবে।

আর্টিকেলের শেষকথাঃ সালাতুত তাসবিহ নামাজের ফজিলত | সালাতুল তাসবিহ নামাজের নিয়ত | সালাতুত তাসবিহ নামাজ পড়ার নিয়ম

আমরা এতক্ষন জেনে নিলাম সালাতুত তাসবিহ নামাজের ফজিলত | সালাতুল তাসবিহ নামাজের নিয়ত | সালাতুত তাসবিহ নামাজ পড়ার নিয়ম। আশা করি আমাদের আজকের এই পোষ্ট টি আপনাদের ভালো লেগেছে। যদি ভালো লাগে তাহলে নিচে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না। আর এই রকম নিত্য নতুন পোষ্ট পেতে আমাদের সবার প্রিয় আরকে রায়হান ওয়েবসাইট টি ভিজিট করুন। সালাতুত তাসবিহ নামাজ পড়ার নিয়ম, সালাতুল তাসবিহ নামাজের নিয়ত ও সালাতুত তাসবিহ নামাজের ফজিলত, salatut tasbih namajer niyom, salatut tasbeeh, salatut tasbih porar niyom, salatut tasbih namajer niyot, salatut tasbih bangla

Next Post Previous Post