business loans, commercial loan, auto insurance quotes, motorcycle lawyer

প্রাচীন আরব উপদ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা আজকে বিষয় হলো প্রাচীন আরব উপদ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান জেনে নিবো। তোমরা যদি প্রাচীন আরব উপদ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান টি ভালো ভাবে নিজের মনের মধ্যে গুছিয়ে নিতে চাও তাহলে অবশ্যই তোমাকে মনযোগ সহকারে পড়তে হবে। চলো শিক্ষার্থী বন্ধুরা আমরা জেনে নেই আজকের প্রাচীন আরব উপদ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান  টি।

প্রাচীন আরব উপদ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান
প্রাচীন আরব উপদ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান

প্রশ্ন ॥ প্রাচীন আরব উপদ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান

উত্তর : ভূমিকা : পৃথিবীর ইতিহাসে আরব দেশের ভৌগোলিক অবস্থান অত্যন্ত উল্লেখযোগ্য একটি বিষয়। ইসলাম ধর্মের তীর্থস্থান এবং মহানবি হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর জন্মভূমি হিসেবে আরব উপ-দ্বীপের গুরুত্ব ও তাৎপর্য অপরিসীম। আরব ভূখণ্ড এশিয়া তথা পৃথিবীর বৃহত্তম উপ-দ্বীপ হিসেবে খ্যাত। এটি এশিয়া মহাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম ভাগে অবস্থিত। ভৌগোলিক দিক থেকে আরব উপ-দ্বীপের গুরুত্ব অপরিসীম। জাজিরাতুল আরব নামে অভিহিত আরব উপ-দ্বীপে জন্ম নিয়েছে বিশ্বের একাধিক সভ্যতা ।

আরবের ভৌগোলিক অবস্থান : আরব ভূ-খণ্ড এশিয়া মহাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থিত। এটি পৃথিবীর সর্ববৃহৎ উপদ্বীপ। তিন দিকে জল ও একদিকে স্থল দ্বারা বেষ্টিত। আরবের পূর্বে পারস্য উপসাগর, পশ্চিমে লোহিত সাগর, উত্তরে সিরিয়া মরুভূমি এর দক্ষিণে ভারত মহাসাগর অবস্থিত। লােহিত সাগরের তীরবর্তী আরব উপদ্বীপ উত্তর দিকে ১২,০০০ ফুট থেকে দক্ষিণ | দিকে ১০,০০০ ফুট। ভূ-প্রকৃতির দিক থেকে আরব ভূমি সিরিয়া | ও মেসােপটেমিয়ার মেরু অঞ্চলের অংশ ছিল। আরব মরুভূমি সাহারা মরুভূমির অন্তর্ভূক্ত ছিল। সমগ্র আরব ভূ-খণ্ড পশ্চিম থেকে | পূর্ব দিকে অপেক্ষাকৃত ঢালু। পূর্বদিকে ওমান পর্বতমালা। দক্ষিণ | অঞ্চল নীচু এবং কিয়দংশ ঢালু, উত্তরের নজদ একটি উচ্চ | মালভূমি রয়েছে। বর্তমানে আরবের মােট আয়তন ১০,২৭০০ | বর্গমাইল। আরবের মােট জনসংখ্যা ১ কোটি ২০ লক্ষ এবং প্রতি | বর্গকিলােমিটারে ৭ জন লােক বসবাস করে।

উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, ইসলামের জন্মভূমি বলে। | পরিচিত আরব ভূ-খণ্ডটির অবস্থান অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। ইসলামের জন্ম ও বিকাশের কেন্দ্র রূপে এবং মহান আল্লাহ তায়ালার অফুরন্ত রহমতের উৎসভূমি হিসেবে আরবদেশ পৃথিবীর তিনটি মহাদেশের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত হওয়ার ফলে সহজে সারা বিশ্বে পৌছানাে সম্ভব, খনিজ সম্পদে ভরপুর ও ভৌগােলিক অবস্থানের কারণে আরব অঞ্চল পৃথিবীর গুরুত্বপূর্ণ স্থানসমূহের মধ্যে অন্যতম।

আর্টিকেলের শেষকথাঃ প্রাচীন আরব উপদ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান

আমরা এতক্ষন জেনে নিলাম প্রাচীন আরব উপদ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান  টি। যদি তোমাদের আজকের এই প্রাচীন আরব উপদ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান  টি ভালো লাগে তাহলে ফেসবুক বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিতে পারো। আর এই রকম নিত্য নতুন পোস্ট পেতে আমাদের আরকে রায়হান ওয়েবসাইটের সাথে থাকো।

Next Post Previous Post