business loans, commercial loan, auto insurance quotes, motorcycle lawyer

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা প্রসঙ্গে প্রতিবেদন

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা আজকে বিষয় হলো ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা প্রসঙ্গে প্রতিবেদন জেনে নিবো। তোমরা যদি পড়াটি ভালো ভাবে নিজের মনের মধ্যে গুছিয়ে নিতে চাও তাহলে অবশ্যই তোমাকে মনযোগ সহকারে পড়তে হবে। চলো শিক্ষার্থী বন্ধুরা আমরা জেনে নেই আজকের ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা প্রসঙ্গে প্রতিবেদন  টি।

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা প্রসঙ্গে প্রতিবেদন
ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা প্রসঙ্গে প্রতিবেদন

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘটিত অপ্রীতিকর ঘটনা সম্পর্কে কলেজের অধ্যক্ষ কর্তৃক আদিষ্ট হয়ে ছাত্র প্রতিনিধি হিসেবে প্রতিবেদন লেখো

বরাবর

অধ্যক্ষ

হাবীবুল্লাহ বাহার কলেজ

শান্তিনগর, ঢাকা ।

বিষয়: ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা প্রসঙ্গে ।

সূত্র: হা বা ক/০৭/০৪/২২

১৩ এপ্রিল, ২০২২

মহোদয়,

গত ১৫ এপ্রিল, ২০২২ তারিখে মহানগর ফুটবল মাঠে ‘হাবীবুল্লাহ বাহার কলেজ' ও 'বোরহান উদ্দীন কলেজ'–এর মধ্যে অনুষ্ঠিত ফুটবল খেলায় সংঘটিত অপ্রীতিকর ঘটনা সম্পর্কে আপনার আদেশে আদিষ্ট হয়ে নিচের প্রতিবেদনটি তুলে ধরছি।

গত ১৫ এপ্রিল বিকাল ৪টায় ‘হাবীবুল্লাহ বাহার কলেজ' ও 'বোরহান উদ্দীন কলেজ'— এর মধ্যে লীগ পর্যায়ের ফুটবল খেলাটি মহানগর মাঠে অনুষ্ঠিত হচ্ছিল । আমরা কলেজ থেকে প্রায় দুইশ জনের মতো শিক্ষার্থী মাঠে দর্শক হিসেবে উপস্থিত ছিলাম । মাঠে দর্শক উপস্থিতি অনেক । একটি ঝকঝকে বিকেল । রেফারির বাঁশি খেলা শুরুর ইঙ্গিত দিলো ।

খেলা শুরুর ১৫ মিনিটের মাথায় আমাদের কৃতী স্ট্রাইকার নকীব প্রথম গোলটি করল। আমরা বিপুল করতালি দিয়ে তাকে অভিনন্দিত করলাম। এরপর বিপক্ষ দল গোল পরিশোধের জন্য মরিয়া হয়ে উঠল। খেলা জমে উঠল । বল নিয়ে উভয় দলই বিপক্ষ দলের গোল সীমানায় আক্রমণ, পাল্টা আক্রমণ করতে থাকল। এর মধ্যেই আমাদের গোলসীমায় স্টপার রাকিবের ফাউল, রেফারি পেনাল্টির সিদ্ধান্ত জানাল। মাঠের বাইরে তখন আমাদের দর্শকদের জোর প্রতিবাদ। রেফারি সিদ্ধান্তে অটল। উভয়পক্ষের খেলোয়াড়দের মধ্যে উত্তেজনা। দর্শক সারিতে আমাদের কলেজের একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান শাখার দুজন ছাত্র ‘ওই ধর' বলে আওয়াজ দিতেই পুরো মাঠ রণক্ষেত্রে পরিণত হওয়ায় খেলা বন্ধ হয়ে গেল। তখন দর্শকদের মধ্যে ছোটাছুটি চলছে। হঠাৎ কোথা থেকে কয়েকজন লোক (স্থানীয়) বাঁশ নিয়ে মাঠে প্রবেশ করে গালাগাল শুরু করে এবং ছাত্রদের দিকে তেড়ে আসে । ছাত্ররাও এগিয়ে গেলে একজন ছাত্রের মাথা বাঁশের আঘাতে ফেটে যায়। তার নাম কামাল। সে দ্বাদশ শ্রেণির বিজ্ঞানের ছাত্র। এসময় আমরা ছাত্র প্রতিনিধি ও আমাদের ক্রীড়া শিক্ষকসহ এগিয়ে এলে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়। আহত কামালকে আমরা পার্শ্ববর্তী ক্লিনিকে চিকিৎসা দিয়ে বাসায় পাঠিয়ে দেই। এরপর আবার খেলা শুরু হয়। আপনি জানেন সে' খেলায় আমরা ২-১ গোলে বোরহানউদ্দীন কলেজের সাথে জিতে যাই ।

শিক্ষক ও ছাত্র প্রতিনিধিদের হস্তক্ষেপের ফলে সেদিনের অপ্রীতিকর ঘটনা সেখানেই মীমাংসা হয়ে যায়। এরূপ ঘটনা, আর যাতে না ঘটে সেজন্য আমরা ভবিষ্যতে সতর্ক থাকব বলে আপনাকে আশ্বস্ত করছি। তবে আমাদের পরের খেলাগুলোতে দুজন শিক্ষক সাথে থাকলে আরও ভালো হয় বলে আমি মনে করি ।

নিবেদক

মোকাররম হোসেন; ক্রীড়া সম্পাদক; হাবীবুল্লাহ বাহার কলেজ ছাত্র সংসদ

* [এখানে প্রতিষ্ঠান ও প্রতিবেদকের ঠিকানাসহ খাম আঁকতে হবে]

আর্টিকেলের শেষকথাঃ ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা প্রসঙ্গে প্রতিবেদন

আমরা এতক্ষন জেনে নিলাম ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা প্রসঙ্গে প্রতিবেদন  টি। যদি তোমাদের আজকের এই পড়াটিটি ভালো লাগে তাহলে ফেসবুক বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিতে পারো। আর এই রকম নিত্য নতুন পোস্ট পেতে আমাদের আরকে রায়হান ওয়েবসাইটের সাথে থাকো।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url

Google News এ আমাদের ফলো করুন

fha loan, va loan, refi, heloc