business loans, commercial loan, auto insurance quotes, motorcycle lawyer

আল্প আরসানালের পরিচয় তুলে ধর

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা আজকে বিষয় হলো আল্প আরসানালের পরিচয় তুলে ধর জেনে নিবো। তোমরা যদি পড়াটি ভালো ভাবে নিজের মনের মধ্যে গুছিয়ে নিতে চাও তাহলে অবশ্যই তোমাকে মনযোগ সহকারে পড়তে হবে। চলো শিক্ষার্থী বন্ধুরা আমরা জেনে নেই আজকের আল্প আরসানালের পরিচয় তুলে ধর।

আল্প আরসানালের পরিচয় তুলে ধর
আল্প আরসানালের পরিচয় তুলে ধর

আল্প আরসানালের পরিচয় তুলে ধর

উত্তর : ভূমিকা : আব্বাসীয় শাসনামল কতকগুলো ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র রাজবংশ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল তার মধ্যে অন্যতম সেলজুক বংশ। সেলজুক বংশের দ্বিতীয় শাসক ছিলেন আলপ আরসানাল বিন জাগরী বেগ দাউদ। 

তিনি একজন স্বনামধন্য শাসক ছিলেন। রাজ্যের সংহতি বিধানে আলপ আরসানালের ভূমিকা এবং বৈদেশিক আক্রমণ প্রতিরোধ তিনি ছিলেন অদম্য। চারিত্রিক গুণাবলির ক্ষেত্রেও তিনি ছিলেন মহানুভব।

→ আলপ আরসানাল : নিম্নে আলপ আরসনালের বিষয়ে সংক্ষিপ্তভাবে তুলে ধরা হলো :

পরিচয় : আলপ আরসানাল ছিলেন জাগরী বেগ দাউদের পুত্র এবং তুলি বেগের ভ্রাতুষ্পুত্র। আলপ আরসানাল তার অপুত্রক চাচা তুমিল বেগের মৃত্যুর পর ১০৬৩ খ্রিস্টাব্দে সিংহাসনে আরোহণ করেন

এবং খলিফা কাইয়ুম কর্তৃক সুলতান উপাধি, বিশেষ ক্ষমতা ও সুযোগ-সুবিধা লাভ করেন। খলিফা তাকে আজাদ-উদ-দৌলার উপাধি প্রদান করেছিলেন। আলপ আরসানাল ছিলেন একজন সুযোগ্য শাসক । তিনি সেলজুক বংশকে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছিলেন।

→ আলপ আরসনালের কৃতিত্ব :

১. মুসলিম প্রাচ্য গৌরবোজ্জ্বল শাসনের সূচনা : রাজ্যের শান্তি ও সমৃদ্ধি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে আলপ আরসানাল মুসলিম প্রাচ্য এক গৌরবোজ্জ্বল অধ্যায়ের সূচনা করেন। মুসলিম সাম্রাজ্য বিস্তৃতিতে তিনি ব্যাপক অবদান রাখেন ।

২. সাম্রাজ্য সুসংহতকরণ : আলপ আরসালানের রাজত্বকাল তুর্কি উপজাতিগণ দলে দলে মুসলিম বাহিনীতে যোগদান করলে তার পক্ষে আব্বাসীয় সাম্রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলে পুনর্দখল করে একটি সুসংহত রাজ্য প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হয়।

৩. দুর্বল আব্বাসীয় খলিফাদের মতো সৌহার্দপূর্ণ ব্যবহার : বুয়াইয়া আমিরগণ দুর্বল আব্বাসীয় খলিফাদের সার্বভৌমত্বে আঘাত হানলেও সেলজুক সুলতানগণ খলিফাদের সাথে সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে চলতেন। আলপ আরসানালের অনুসারীরাও তাদের সাথে ভালো ব্যবহার করতেন।

৪. নতুন রাজধানী প্রতিষ্ঠা : আলপ আরসানালর অন্যতম কৃতিত্ব হলো রাজধানী পূর্বাঞ্চল খোরাসান থেকে রাজ্যের কেন্দ্রস্থল ইস্পাহানে স্থানান্তরকরণ। এর মাধ্যমে বিদ্রোহ বিশৃঙ্খলা, অরাজকতা দূর করা আলপ আরসানালের পক্ষে অনেকটা সহজ হয়েছিল।

উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, আলপ আরসানাল সমসাময়িক মুসলিম শাসকদের মাঝে অন্যতম শ্রেষ্ঠ শাসক ছিলেন। এশিয়া মাইনরে ইসলামের প্রভুত্ব সম্প্রসারণে আলপ আরসানালের ভূমিকা ছিল অনেক। আব্বাসীয় খিলাফতের সংহতি বিধানে আরসানালের কৃতিত্ব ছিল সত্যই তা প্রশংসার দাবিদার।

আর্টিকেলের শেষকথাঃ আল্প আরসানালের পরিচয় তুলে ধর

আমরা এতক্ষন জেনে নিলাম আল্প আরসানালের পরিচয় তুলে ধর। যদি তোমাদের আজকের এই পড়াটিটি ভালো লাগে তাহলে ফেসবুক বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিতে পারো। আর এই রকম নিত্য নতুন পোস্ট পেতে আমাদের আরকে রায়হান ওয়েবসাইটের সাথে থাকো।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url

Google News এ আমাদের ফলো করুন

fha loan, va loan, refi, heloc