business loans, commercial loan, auto insurance quotes, motorcycle lawyer

মুইজ উদ দৌলার পরিচয় দাও

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা আজকে বিষয় হলো মুইজ উদ দৌলার পরিচয় দাও জেনে নিবো। তোমরা যদি পড়াটি ভালো ভাবে নিজের মনের মধ্যে গুছিয়ে নিতে চাও তাহলে অবশ্যই তোমাকে মনযোগ সহকারে পড়তে হবে। চলো শিক্ষার্থী বন্ধুরা আমরা জেনে নেই আজকের মুইজ উদ দৌলার পরিচয় দাও ।

মুইজ উদ দৌলার পরিচয় দাও
মুইজ উদ দৌলার পরিচয় দাও

মুইজ উদ দৌলার পরিচয় দাও

উত্তর : ভূমিকা : আহমদ ইবনে আবু সুজা ওরফে মুইজ উদ-দৌলা ছিলেন আব্বাসীয় খিলাফতে বুয়াইয়া রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতা। বুয়াইয়ারা শিয়া মতাদর্শের অনুসারী ছিলেন। 

আব্বাসীয় খলিফা আল মুসতাকফির আহ্বানে সাড়া দিয়ে আহমদ ইবনে সুজা বাগদাদে প্রবেশ করলে তুর্কি বাহিনী ভয়ে পলায়ন করেন। খলিফা তার উপর সন্তুষ্ট হয়ে আহমদ ইবনে সুজাকে আমির উল-উমরা এবং মুইজ-উদ দৌলা উপাধি দেন।

১. মুইজ-উদ-দৌলার পরিচয় : আহমদ ইবনে আবু সুজা বুয়াইয়া রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতা। তিনি মুইজ উদ-দৌলা নামে পরিচিত। তার পিতার নাম ছিল আবু সুজা। মুইজ-উদ-দৌলার পিতা প্রথম জীবনে উপজাতিদের নেতা ছিলেন। 

পরবর্তীতে তিনি সামানীয় রাজবংশের অধীনে চাকরি নেন। সুজার তিনপুত্রের মধ্যে আহমদ ইবনে আবু সুজা সবার বড় ছিলেন ।

২. রাজধানীতে অভিযান : আহমদ ইবনে আবু সুজা আলী ও হাসান তিন ভাই একত্রে অভিযান করে ৯৩৪ সালে ইস্পাহান, সিরাজ, খুজিস্থান, কিরমান প্রভৃতি শহর দখল করেন। এরপর তারা সিরাজে তাদের রাজধানী স্থাপন করেন। 

আহমদের বিপুল সাফল্যের খবর পেয়ে তৎকালীন দুর্বল আব্বাসীয় খলিফা মুসতাকফি তাকে বাগদাদে আহ্বান করেন। খলিফার আহ্বানে সাড়া দিয়ে ৯৪৫ সালে আহমদ তুর্কি বাহিনীকে পরাজিত করে বাগদাদে প্রবেশ করেন।

৩. মুইজ-উদ-দৌলা উপাধি লাভ : তুর্কিদের অপরিসীম অত্যাচার থেকে খলিফাকে মুক্ত করলে তাকে মুইজ-উদ-দৌলা উপাধিতে ভূষিত করেন। এরপর খলিফা তাকে আমির উল-উমারাহ্ পদে নিযুক্ত করেন।

৪. বংশ প্রতিষ্ঠা : মুইজ উদ-দৌলা পিতা বুয়াইয়ার নামানুসারে এ বংশের নামকরণ বুয়াইয়া করেন।

উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, মুইজ-উদ-দৌলা একজন ক্ষমতালোভী নিষ্ঠুর, অত্যাচারী ও বিশ্বাসঘাতক শাসক ছিলেন। তারপরও তিনি শিল্পসাহিত্যের পৃষ্ঠপোষকতা করতেন। মুইজ-উদ- দৌলার রাজত্বকালের তেমন কোনো রাজনৈতিক গুরুত্ব নেই।

আর্টিকেলের শেষকথাঃ মুইজ উদ দৌলার পরিচয় দাও

আমরা এতক্ষন জেনে নিলাম মুইজ উদ দৌলার পরিচয় দাও। যদি তোমাদের আজকের এই পড়াটিটি ভালো লাগে তাহলে ফেসবুক বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিতে পারো। আর এই রকম নিত্য নতুন পোস্ট পেতে আমাদের আরকে রায়হান ওয়েবসাইটের সাথে থাকো। 

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url

Google News এ আমাদের ফলো করুন