business loans, commercial loan, auto insurance quotes, motorcycle lawyer

সুলতান মাহমুদের ভারত আক্রমণের উদ্দেশ্য কি ছিল

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা আজকে বিষয় হলো সুলতান মাহমুদের ভারত আক্রমণের উদ্দেশ্য কি ছিল জেনে নিবো। তোমরা যদি পড়াটি ভালো ভাবে নিজের মনের মধ্যে গুছিয়ে নিতে চাও তাহলে অবশ্যই তোমাকে মনযোগ সহকারে পড়তে হবে। চলো শিক্ষার্থী বন্ধুরা আমরা জেনে নেই আজকের সুলতান মাহমুদ কেন ভারত আক্রমণ করেছিলেন।

সুলতান মাহমুদের ভারত আক্রমণের উদ্দেশ্য কি ছিল
সুলতান মাহমুদের ভারত আক্রমণের উদ্দেশ্য কি ছিল

সুলতান মাহমুদের ভারত আক্রমণের উদ্দেশ্য কি ছিল

  • অথবা, সুলতান মাহমুদ কেন ভারত আক্রমণ করেছিলেন?
  • অথবা, সুলতান মাহমুদের ভারত আক্রমণের কারণ কি ছিল?
  • অথবা, কি কি কারণে সুলতান মাহমুদ ভারত আক্রমণ করেছিল?

উত্তর : ভূমিকা : সুলতান মাহমুদ ছিলেন সেই যুগের সৈন্যধ্যক্ষদের অন্যতম এবং একজন শ্রেষ্ঠ বিজেতা। তাহার লোলুপ দৃষ্টি ভারতের অতুল ঐশর্য, ধন-দৌলত ও হিন্দুস্থানের উপর উর্বর ভূমির উপর আকৃষ্ট হয়। 

তাই অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক কারণে সুলতান মাহমুদ ভারত আক্রমণে ব্রতী হন। ঐতিহাসিক স্যার হেনরী ইলিয়টের মতে, সুলতান মাহমুদ মোট ১৭ বার ভারত আক্রমণ করেন।

→ সুলতান মাহমুদের ভারত অভিযানের উদ্দেশ্য : সুলতান মাহমুদের অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য ছাড়াও আরও অনেক উদ্দেশ্য ভারত আক্রমণ করেছিলেন, নিয়ে তার বর্ণনা দেওয়া হলো :

১. অর্থনৈতিক উদ্দেশ্য : উচ্চকাঙ্ক্ষামূলক পরিকল্পনাদি কার্যকরী করতে সুলতান মাহমুদের প্রচুর অর্থের প্রয়োজন ছিল। তাহার লোলুপ দৃষ্টি ভারতবর্ষের ঐশ্বর্যমণ্ডিত ধন-দৌলত ও উর্বর ভূমির দিকে আকৃষ্ট হয়। আর তাই তিনি ভারতীয় রাজার সন্ধি ভঙ্গ করে ১০০০ হতে ১০২৭ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত মোট ১৭ বার ভারত অভিযান করলেন।

ঐতিহাসিকগণ বলেছেন, সুলতান মাহমুদ ভারতের দেবমন্দির ও বিগ্রহাদির ধ্বংস সাধন করেন এবং সেখান থেকে তিনি বহু ধনরত্ন লুণ্ঠন করেন। প্রকৃতপক্ষে তিনি যেসব মন্দির আক্রমণ করেছিলেন তাতে বিপুল ও বর্ণনাতীত ধনরত্ন ছিল বলে ধারণা করা হয়।

২. রাজনৈতিক উদ্দেশ্য : সুলতান মাহমুদের ভারত আক্রমণের অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে রাজনৈতিক কারণ। হিন্দু রাজাদের সন্ধির শর্তভঙ্গ, সুলতানের প্রতি তাদের আনুগত্য অস্বীকার করা, 

শত্রুপক্ষকে সাহায্য করে রাজনৈতিকভাবে বিশ্বাসঘাতকতা করা এবং তার অধীন ভারতীয় উপমহাদেশের সামন্ত রাজাদের বিদ্রোহ তাকে ভারতীয় উপমহাদেশ আক্রমণ করতে বাধ্য করেছিল। তার রাজ্যকে সম্প্রসারণ করে রাজনৈতিকভাবে শক্তিশালী হয়ে উঠাও এটার অন্যতম কারণ হিসেবে বিবেচিত।

৩. সামরিক উদ্দেশ্য : গজনীয় প্রভাবশালী ও শ্রেষ্ঠ সমরনায়ক হিসেবে পরিচিত সুলতান মাহমুদ বারবার ভারতবর্ষ আক্রমণ করে তার সামরিক ক্ষমতা প্রকাশ করার একটা দিক এখানে প্রতীয়মান হয়, তিনি নিজের ক্ষমতা, অপূর্ব তেজস্বিতা, ও সাংগঠনিক দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। 

নিজ সামরিক শক্তিকে আরও শক্তিশালী করা এবং ভারতবর্ষে মুসলমান শাসনের পথকে আরও সুগম করাকে আক্রমণের অন্যতম কারণ হিসেবে গণ্য করা হয়।

৪. ধর্মীর উদ্দেশ্য : কোন কোন ঐতিহাসিকদের মতে, সুলতান মাহমুদের ভারত আক্রমণের মূল উদ্দেশ্য ছিল ধর্মীয়। সমালোচকরা বলেছেন, তার মূল উদ্দেশ্য ছিল ধর্মীয় গোড়ামিতে ডুবে মূর্তি ভাঙ্গা এবং মন্দিরসমূহ অপবিত্র করে ইসলাম ধর্ম প্রচার করা। 

ইসলাম ধর্মকে বর্ধিত করা এবং ইসলামি সংবিধান প্রণয়ন করার জন্য তিনি ভারত আক্রমণ করেন। নিরপেক্ষ, বিচারে মাহমুদের ধর্মপ্রচার পৌত্তলিকতা বিরোধী এবং ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের জিহাদ পরিচালনাকারী মনে হয় না। 

কারণ তিনি কখনো হিন্দুদেরকে বলপূর্বক মুসলিম ধর্মে দীক্ষিত করেননি। এন্টনি ফিরিঙ্গিনির মতে, তিনি কখনো যুদ্ধের ময়দানে ছাড়া কোন হিন্দুকে হত্যা করেছেন এরূপ কোন প্রমাণ নেই ।

উপসংহার : পরিশেষে আমরা বলতে পারি, সুলতান মাহমুদ ১৭ বার ভারত আক্রমণ করে প্রত্যেকবারই অশেষ দক্ষতায় জয়লাভ করেন। তার ভারত আক্রমণের পেছনে প্রধান কারণ ছিল রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক এছাড়াও ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করলে দেখা যায় যে ধর্মের প্রভাবও কম ছিল না।

আর্টিকেলের শেষকথাঃ সুলতান মাহমুদের ভারত আক্রমণের কারণ কি ছিল

আমরা এতক্ষন জেনে নিলাম কি কি কারণে সুলতান মাহমুদ ভারত আক্রমণ করেছিল। যদি তোমাদের আজকের এই পড়াটিটি ভালো লাগে তাহলে ফেসবুক বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিতে পারো। আর এই রকম নিত্য নতুন পোস্ট পেতে আমাদের আরকে রায়হান ওয়েবসাইটের সাথে থাকো। 

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url

Google News এ আমাদের ফলো করুন

fha loan, va loan, refi, heloc