আরকে রায়হান https://www.rkraihan.com/2021/09/How-to-Get-More-Sales-on-Fiverr.html

ফাইভারে সেল বৃদ্ধি করার কয়েকটি উপায়



 

ফাইভারে সেল বৃদ্ধি করার কয়েকটি উপায়


How to Get More Sales on Fiverr?

ফাইভারের নিয়ম হচ্ছে শুদু বায়ার যদি সেলারকে ম্যাসেজ তাহলেই বায়রের সাথে যোগাযোগ সম্ভব অথবা বায়ার রিকুয়েস্ট এর মাধ্যমে যোগাযোগ করা যায়। এখন এই দুইটি মাধ্যমের জন্য অপেক্ষা না করে আমরা বিভিন্ন ট্রিক্স অনুসরণ করে আমাদের সেল বাড়াতে পারি। এই পর্বে আমি নিয়মিত বিভিন্ন টিপস দেওয়ার চেষ্টা করবো যা আপনার সেল বাড়াতে সাহায্য করবে। যে ট্রিক্স আমার সেল বাড়াতে সাহায্য করে আমি সেই টিপস গুলো দিব। আশা করি সবার উপকারে আসবে।

আরো পড়ুনঃ

টিপস ১

বায়ার যখন আপনাকে যখন কোন কাজের জন্য হায়ার করলো। উনার নিশ্চয়ই একটি কাজের জন্য ফাইভারে অ্যাকাউন্ট খোলার প্রয়োজন নেই? নিয়মিত বা মাঝেমধ্যে কাজের প্রয়োজন আছে বলেই অ্যাকাউন্ট খোলা। এখন আপনি কিভাবে বুঝবেন কোন কাজগুলো বা সার্ভিস বায়ারের নিয়মিত বা মাঝেমধ্যে প্রয়োজন?


একদম সোজা। মেসেজ বক্সে উনার সাথে যে জায়গায় আপনার কথা হচ্ছে, ঠিক ডান পাশে উনার নাম দেওয়া আছে। উনার নামে ক্লিক করলে প্রোফাইলে নিয়ে যাবে। এখন উনি যাদেরকে দিয়ে কাজ করিয়েছেন তারা উনাকে রিভিউ দিছে। এখান থেকে ইউজারনেম নিয়ে http://www.fiverr.com/username লিখলে অই সেলারের প্রোফাইলে চলে যাবে।


এরপর সেলারের গিগ দেখে আপনি ধারণা করতে পারেন বায়ার কি কি করিয়েছেন। বা বায়ার যে গিগে রিভিউ দিয়েছেন ওইটা দেখেও বুঝতে পারবেন বায়ারের চাহিদা কি। যদি আপনিও কাজটি পারেন তাহলে বায়ারকে অফার দিতে পারেন। মনে রাখবেন, যাদের সময়ের অভাব তারা কিন্তু কাঁচা বাজার বা মাছ বাজারে আলাদা না গিয়ে, সরাসরি স্বপ্ন, আগোরার মত শপে যায়। তেমনি বায়ারও চাইবে অনেক সেলারের কাছ থেকে সার্ভিস না নিয়ে একজনের কাছ থেকে নিতে।

টিপস ২

অনেকগুলো কাজ করার পরে আপনার অনেক বায়ার পেয়ে যাবেন। যাদের সাথে অনেক আগে কাজ করা হইছে, তাদেরকে মেসেজ দিয়ে বলতে পারেন উনার নতুন কোন কাজ লাগবে কিনা বা আগের কাজের কোন সমস্যা আছে কিনা বা কিছু আপডেট করা লাগবে কিনা। সব ঠিক আছে কিন্তু সরাসরি কাজের জন্য মেসেজ দেওয়া অভদ্রতা এবং তা স্প্যামের পর্যায়ে পরে। অনেক বায়ার বিরক্ত হতে পারেন। কেউ রিপোর্টও করতে পারেন


এই জন্য আমরা একটা মার্কেটিং নিয়ম অনুসরণ করতে পারি। আমদের ঈদ, পুজার মত উনাদের বিভিন্ন উৎসব আছে। বা নতুন বছর, ব্ল্যাক ফ্রাইডে, ক্রিসমাস এর মত অনেক দিবস আছে। বিশেষ দিবসগুলোর আগে আপনি শুভেচ্ছা জানিয়ে সুন্দর করে ভার্চুয়াল কার্ড তৈরি করতে পারেন। আপনি ফটোশপ না জানলে সমস্যা নেই। অনলাইনে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনি ফ্রিতে সুন্দর কার্ড ডিজাইন করতে পারেন।


আর অবশ্যই কার্ডে উনার নাম উল্লেখ করবেন। যাতে বুঝতে পারেন কার্ডটা উনার জন্নই বানানো হয়েছে। কার্ডে সিমপ্লি শুভেচ্ছা জানাবেন। কোন কাজ বা অন্য কিছু লিখবেন না। একই কার্ড আপনি বিভিন্ন বায়ারকে পাঠাতে পারেন। শুদু নাম বদলে দিবেন।

শুভেচ্চা পেতে কার না ভালো লাগে? বায়ারেরও ভালো লাগবে এবং সবচেয়ে বড় সুবিদা আপনার নাম উনার মনে থাকবে। পরবর্তী কাজ করানোর সময় আপনাকে নক করার চান্স বাড়বে।

টিপস ৩

এই টিপসটা একটু কঠিন বাট অনেক কাজের। ফ্রিলান্সিং কাজ করার জন্য আপনি যদি একটি টিম তৈরি করতে পারেন তাহলে খুব ভালো হয়। ধরুন বায়ার একটি নতুন বিজনেস শুরু করবে। উনার ওয়েবসাইট দরকার, লোগো দরকার, মার্কেটিং অনেক কাজ করাতে হবে। এই জন্য অনেক সেলারকে হায়ার করতে হবে। তবে আপনার যদি টিম থাকে তাহলে কাজ শুরু করার আগে ফুল কাজের বিবরণজাচ্ছে। পারেন। উনার যে সার্ভিস লাগবে সব কাজের জন্য আপনার একটা টিম আছে। বায়ারের সুবিদা হল। উনি সব কাজ একই জায়গায় করাতে পারছে। ভবিষ্যতে সমস্যা হলে বিভিন্ন সেলারকে নক দেওয়া লাগছে না। এক জায়গায় নক করলেই সব সমস্যার সমাধান পাওয়া যাচ্ছে।


মূল কথা এই প্রফেশনে ঠিকে থাকতে হলে বা উন্নতি করতে হলে আপনাকে স্মার্ট হতে হবে। স্মার্ট বলতে কাপর বা দামী ল্যাপটপে না! বুদ্ধি খাটিয়ে, পরিশ্রম করে, সময়ের সাথে চিন্তাভাবনা ইত্যাদি আয়ত্ত করতে হবে।


আরো পড়ুনঃ

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন:

0 Comments

Please read our Comment Policy before commenting. ??

Please do not enter any spam link in the comment box.

আরকে রায়হান নোটিফিকেশন