অসুস্থতা কি ও অসুস্থতার ফলে যেসব সমস্যার সৃষ্টি হয় তা আলোচনা কর

 আসসালামু আলাইকুম প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা আজকে বিষয় হলো অসুস্থতা কি ও অসুস্থতার ফলে যেসব সমস্যার সৃষ্টি হয় তা আলোচনা কর জেনে নিবো। তোমরা যদি পড়াটি ভালো ভাবে নিজের মনের মধ্যে গুছিয়ে নিতে চাও তাহলে অবশ্যই তোমাকে মনযোগ সহকারে পড়তে হবে। চলো শিক্ষার্থী বন্ধুরা আমরা জেনে নেই আজকের অসুস্থতা কি ও অসুস্থতার ফলে যেসব সমস্যার সৃষ্টি হয় তা আলোচনা কর ।

অসুস্থতা কি ও অসুস্থতার ফলে যেসব সমস্যার সৃষ্টি হয় তা আলোচনা কর
অসুস্থতা কি ও অসুস্থতার ফলে যেসব সমস্যার সৃষ্টি হয় তা আলোচনা কর

অসুস্থতা কি ও অসুস্থতার ফলে যেসব সমস্যার সৃষ্টি হয় তা আলোচনা কর

অসুস্থতা বলতে কি বুঝ? অসুস্থতায় মানুষের আর্থসামাজিক ক্ষেত্রে যে সমস্যার সৃষ্টি হয় বর্ণনা কর।

উত্তর : ভূমিকা : স্বাস্থ্য হলো সামাজিক মানসিক এবং পরিবেশ গত দিকে দিয়ে সকল প্রকার অসুস্থতা থেকে মুক্ত থাকা এর বর্ণনা মতে স্বাস্থ্য হতে হলে মানসিক শারীরিক এবং সামাজিক দিক দিয়ে অসুস্থতা থেকে মুক্ত থাকা। 

আর অসুস্থতা হলো স্বাস্থ্যর অসুস্থতা হলো শরীরের রক্তের কার্যাবলির কিছু বাধা যাতে রক্ত চলাচলে ব্যাহত করে। সুতরাং অসুস্থতা প্রত্যয়টি সামাজিক বিজ্ঞানে ব্যাপকভাবে আলোচিত হয় ।

→ অসুস্থতা : স্বাভাবিকভাবে বলা যায় মানুষের শরীর যখন স্বাভাবিক অবস্থা থেকে বিচ্যুত হয় তখন অসুস্থতা হলো ব্যক্তির | মানসিক শারীরিক সাংস্কৃতিক যাবতীয় বিষয়ে সুস্থতার অনুপস্থিকেই বুঝায়। 

বিশ্ব স্বাস্থ্যে সংজ্ঞা WHO বলেন স্বাস্থ্য হলো মানসিক শারীরিক ও সামাজিক দিক দিয়ে সুস্থতার অভাব । সুতরাং অসুস্থতা এবং সুস্থতা দুটি পরিভাষা সামাজিক ও সংস্কৃতিক দিক দিয়েও সংজ্ঞায়িত করা যায়। তাই অসুস্থতা বলতে মানসিক শারীরিক সামাজিক ও সংস্কৃতিক কি দিয়ে সুস্থতার অনুপস্থিত।

→ অসুস্থতার ফলে সৃষ্ট সমস্যাসমূহ : অসুস্থতার ফলে মানবজীবনে নানা রকম সমস্যা সৃষ্টি হয়। নিম্নে অসুস্থতার ফলে সৃষ্ট সমস্যা সমূহ উল্লেখ করা হলো-

১. পারিবারিক ভাঙ্গন : পরিবার হলো -বাবা -মা- ভাই- বোন মিলে একত্রে বসবাস করা। পরিবার বড় অথবা ছোট অথবা উভয়েই হতে পারে। সকলেই চায় সুখকর ও শান্তিপূর্ণ পরিবারে বসবাস করা। 

কিন্তু বর্তমানে নগরায়ন, শিল্পায়ন ইত্যাদির মাধ্যমে যৌথ পরিবার ভেঙে ছোট ছোট পরিবার সৃষ্ট হচ্ছে। এর ফলে মানুষের ভিতরে একাকিত্ব বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এভাবে সে অসুস্থ হয়ে পরে এবং এর ফলে অসুস্থ ব্যক্তি পরিবার থেকে খুব বেশি সমর্থন পান না এবং তার খোজ কবর তারা রাখে না। ফলে তাকে দীর্ঘদিন একাকি থাকতে হয় এবং এক পর্যায়ে অসুস্থতা অনুভব করে ।

২. সম্মান এবং বন্ধনলোপ : বড়দের সম্মান প্রদর্শন এবং ছোটদের স্নেহ করা সবারই দায়িত্ব কিন্তু দেশে বিদেশি সংস্কৃতির অনুপ্রবেশ, মূল্যবোধের অবক্ষয় নৈতিকতার কারণে বৃদ্ধ ও অসুস্থ ব্যক্তিদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন কমিয়ে যাচ্ছে, সমাজে যারা অসুস্থ বৃদ্ধ আদিবাসি এরা সবাই অসুস্থতার শিকার সামাজিকভাবে তাদের উপেক্ষা করা হচ্ছে এবং তাদের অবহেলা ও অনাদর করা হচ্ছে। তাই অসুস্থ ব্যক্তি সমাজে হয়েছেন গুরুত্বহীন ব্যক্তি এবং সংসারে বোঝা ও অবহেলো। পাত্র ।

৩. মৌল মানবিক চাহিদা : উন্নত দেশে যদিও মৌলিক চাহিদা পূরণ করা হয় কিন্তু অনুন্নত দেশে মানুষের মৌলিক চাহিদাসমূহ পূরণ করা হয় না। 

মৌলিক চাহিদাসমূহ হলো- ১. অন্ন, ২. বস্ত্র, ৩ বাসস্থান, ৪. শিক্ষা ও ৫. স্বাস্থ্য। যারা অসুস্থ তারা এ সকল মৌলিক চাহিদা থেকে দূরে । তাদের এ চাহিদাগুলো পূরণ হয় না ।

৪. অর্থনৈতিক সমস্যা : অর্থনৈতিক সমস্যা হলো অসুস্থতার অন্যতম একটি সমস্যা। পরিবারে অসুস্থ ব্যক্তি উপার্জন করতে পারে না; বরং তাদের খরচ বাড়ে, আমরা বাংলাদেশের দিক থেকে বিবেচনা করতে পারি এবং বলতে পারে, যে ব্যক্তি পরিবারে অসুস্থ তার উপর অর্থ ব্যয় বাড়ে। 

এমনিতে অসুস্থ ব্যক্তি অর্থ উপার্জন করতে পারে না তার উপর আবার অর্থ ব্যয় বেড়ে যায়, ফলে দেখা যায় তারা জমিজমা বিক্রি করে দিয়ে নিঃস্ব হয়ে যায় এবং আর কিছু অবশিষ্ট থাকে না। এভাবে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সমস্যার সৃষ্টি হয়।

৫. দারিদ্র্য : দারিদ্র্যতা বৃদ্ধির অন্যতম একটি কারণ হলো অসুস্থতা। পরিবারের সবাই যদি উপার্জন করে তবে তাদের পরিবার সমৃদ্ধি লাভ করে কিন্তু যদি পরিবারের অধিকাংশ সদস্য অসুস্থ হয়ে পরে তবে তারা অভাবে পড়ে, এভাবে সমাজে দেখা যায় অসুস্থ ব্যক্তিই বেশি ঋণগ্রস্ত হয় এবং দারিদ্র্যতার শিকার হয় । এভাবে দরিদ্র্যতা বৃদ্ধি পায় ।

৬. বিনোদন সমস্যা : অসুস্থ ব্যক্তিরা বিনোদনের জন্য তেমন কোনো সুযোগ-সুবিধা পান না। আর আমাদের দেশে এটা আরো বিরল, একজন সুস্থ মানুষ - ক্রিকেট, ফুটবল, হকি, হাডুডু ইত্যাদি খেলার সুযোগ পায় এবং মানসিক প্রশান্তি আনয়ন করে। 

কিন্তু একজন অসুস্থ ব্যক্তি এ সকল খেলা খেলতে পারে না। আবার যদি অসুস্থ ব্যক্তি দূরে ভ্রমণ করতে চায় তবে সে তাও পারে না। তাই এভাবে সে সকল প্রকার বিনোদন থেকে দূরে থাকেন

৭. ভিক্ষাবৃত্তি : মানুষকে বাঁচতে হলে তারা খাইতে হবে অর্থাৎ জীবন নির্বাহ করতে হবে। কিন্তু অসুস্থ ব্যক্তিরা যেমন- অক্ষম, প্রবীণ, অসহায়, দরিদ্র বিকলাঙ্গ এরা সবাই উপার্জন থেকে অনেক দূরে থাকে এদের মানসিক ইচ্ছা থাকলেও তা করতে পারে না। 

ফলে এদের অধিকাংশ ভিক্ষাবৃত্তি জীবিকা নির্বাহের অবলম্বন হিসেবে নিয়ে নেয়। অসুস্থ ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে এটা একটা স্বাভাবিক অব্যবস্থা। বিশেষত যারা অতি দরিদ্র তারা এ সকল পেশার সাথে যুক্ত হওয়া আর কোনো উপায় থাকে না ।

৮. মানসিক সমস্যা : প্রবাদে বলা হয় সুস্থ শরীরে সুস্থ মন থাকে। তাই মানসিক সমস্যা বেশি হয় যারা শারীরিকভাবে বিকলাঙ্গ অসুস্থ বিচ্ছিন্ন একাকিত্ব নিঃসঙ্গতা উদ্বেগ অনুভব করে। 

আত্মহত্যার পরিমাণ ও মানসিক ভোগে যখন কেউ অসুস্থ লোকদের অস্বাভাবিক কথা বলে। এজন্য আন্তরিকতা শ্রদ্ধা, ভালোবাসা, সহানুভূতি, সহমর্মিতা, মানসিক অনুভূতির অভাবে তারা মানসিক বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়তে হয়। 

বিশ্বব্যাপী অসুস্থরাই মারাত্মক যন্ত্রণায় ভোগ। দেখা যায় অসুস্থরাই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নতুন নতুন মানসিক অসুস্থতার তালিকায় অগ্রগামী। সুতরাং অসুস্থদের সামাজিক সাংস্কৃতিক অর্থনৈতিক প্রভৃতি সমস্যা মতো মানসিক সমস্যা ও ব্যাপকভাবে আক্রান্ত হতে পারে ।

৯. স্বাস্থ্যখাতে ব্যয়বৃদ্ধি : দারিদ্র্য পীড়িত এবং অনুন্নত দেশ এবং সীমিত সুযোগ-সুবিধার দেশে অসুস্থতার কারণে স্বাস্থ্যখাতে ব্যয় বৃদ্ধি পাচ্ছে। 

অসুস্থ ব্যক্তি এবং দরিদ্র ব্যক্তি স্বাস্থ্যখাতে অনেক টাকা ব্যয় করে। অপরদিকে এদের চিকিৎসার জন্য সরকার অনেক অর্থব্যয় করে। সরকারিভাবে অনেক ঔষধ সরবরাহ করছে এবং রোগ নির্ণয়ের জন্য ও অর্থ ব্যয় করেন। 

তাছাড়া সদর হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রতিষ্ঠান সরকারের বড় মাপের ভর্তুকি দিতে হয় অনেক রোগ আছে যেমন- লিভার কিডনির দুর্বলতা স্ট্রোক ও মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ প্যারালাইসিস যক্ষ্মা নিউমোনিয়া এবং সিজোধ্যোনিয়ার মত মানসিক রোগের জন্য সরকারের বাজেটের একটি বিরাট অংশ বরাদ্দ রাখতে হয়। এভাবেই অসুস্থতা সরকারের ব্যয়বৃদ্ধি করছে।

উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে, সুস্থই সকল সুখের মূল। অসুস্থতা সকল দুঃখের মূল। মানুষ অসুস্থ হয়ে গেলে সে কাজ করতে পারে, অর্থ উপার্জন করতে পারে না, বিনোদনের সুযোগ ভোগ করতে পারে না, মৌলিক অধিকার পুরণ করতে পারে না, মূলত বলা যায় অসুস্থতার কারণে মানুয়ের জীবনে নেমে আসে হতাশ, দুর্দশা ও মানসিক বিকৃত। 

আবার দেখা  যায়, অসুস্থ ব্যক্তির মানসিক অবস্থা খিটখিটে হয়ে যায়। সকল প্রকার কথাই তার কাছে অস্বস্তিকর বলে মনে হয়। তাই সবারই উচিত এ অসুস্থতা থেকে মুক্তি থাকা ।

আর্টিকেলের শেষকথাঃ অসুস্থতা কি ও অসুস্থতার ফলে যেসব সমস্যার সৃষ্টি হয় তা আলোচনা কর

আমরা এতক্ষন জেনে নিলাম অসুস্থতা কি ও অসুস্থতার ফলে যেসব সমস্যার সৃষ্টি হয় তা আলোচনা কর । যদি তোমাদের আজকের এই পড়াটিটি ভালো লাগে তাহলে ফেসবুক বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিতে পারো। আর এই রকম নিত্য নতুন পোস্ট পেতে আমাদের আরকে রায়হান ওয়েবসাইটের সাথে থাকো।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url

Follow Our Google News